আফিফ-নাঈমের ঝড়ের দিনে আবাহনীর পঞ্চম জয়

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আবাহনী লিমিটেড ও শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচ শেষ হতে বাকি ছিল আর মাত্র ৩ ওভার। এর মাঝেই সাভারের বিকেএসপিতে শুরু হয় বৃষ্টি। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে তাই আবার খেলা গড়ানোর কোনো সম্ভাবনাই ছিল না। যার কারণে শাইনপুকুরের ১৭ ওভারেই থেমে যায় শাইনপুকুরের ইনিংস। বৃষ্টি আইনে, এই ম্যাচে ২৫ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয় আবাহনীকে। যা এবারের ডিপিএলে আবাহনীর পঞ্চম জয়।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৫ উইকেটে ১৮৩ রানের বড় পুঁজি পায় আবাহনী। যেটি কিনা এবারের আসরের সর্বোচ্চ স্কোর। যেখানে উদ্বোধনী জুটি থেকেই আসে ১১১ রান। ১২.১ ওভার স্থায়ী সেই জুটি গড়েন নাঈম শেখ ও মিডল অর্ডার থেকে ওপেনিংয়ে ব্যাট করতে নামা আফিফ হোসেন ধ্রুব। ৪২ বলে ৩ চার ও ৪ ছক্কায় ৫৪ রানের ইনিংস খেলে আফিফ ফিরলে ভাঙে সেই জুটি।

এরপর উইকেটে এসে ৯ বল ১৮ রানের ক্যামিও খেলে ফিরে যান নাজমুল হোসেন শান্ত। দলীয় ১৬৮ রানের নাঈম শেখের বিদায় তৃতীয় উইকেট হারায় আবাহনী। ৫০ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ৪ ছক্কায় ৭০ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে ড্রেসিং রুমের পথ ধরেন নাঈম। শেষ দিকে সাইফুদ্দিন ১৪ ও টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক হওয়া স্বাধীন করেন ১২ রান।

শাইনপুকুরের হয়ে এদিন তানভীর ৪ ওভার বল করে একাই ৪ উইকেট শিকার করেন। একটি উইকেট লাভ করেন মোহর শেখ।

বড় লক্ষ্যে ব্যাট করত নেমে শুরু থেকেই ধীর গতির রানের সাথে উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে শাইনপুকুর। শেষ পর্যন্ত ১৭ ওভারে যখন দলের রান ৫ উইকেটে ১২৩, তখনই বৃষ্টি শুরু হয়। এরপর আর মাঠে গড়াতে পারেনি খেলা। ম্যাচ অফিসিয়ালরা বৃষ্টি আইনে আবাহনীকে ২৫ রানে জয়ী ঘোষণা করেন। দলের পক্ষে ৩২ বলে সর্বোচ্চ ৩৬ রান আসে অধিনায়ক তৌহিদ হৃদয়ের ব্যাট থেকে। এছাড়া বৃষ্টির আগে তাণ্ডব চালিয়ে মাহিদুল অঙ্কন অপরাজিত থাকে ১৫ বলে ৪ ছক্কায় ৩১ রান করে।

আবাহনীর হয়ে দুর্দান্ত বল করেন সাইফুদ্দিন। ৩ ওভার বল করে মাত্র ১২ রান খরচায় ৩টি উইকেট তুলে নেন তিনি। মোসাদ্দেক ও স্বাধীন পকেটে পুড়েন একটি করে উইকেট।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা