আমি মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত কেউ সভাপতি হতে চাইবে নাঃ পাপন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ২০১২ সালে সরকার কর্তৃক মনোনীত হয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি হয়েছিলেন নাজমুল হাসান পাপন। এরপর ২০১৩ সালে বিসিবি নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়ে দায়িত্ব নেন। চার বছর পর ফের ২০১৭ সালে নির্বাচন আসলে, সেখানেও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নির্বাচিত হয়ে সভাপতির দায়িত্ব নেন পাপন।

সামনে আসছে আরও একটি নির্বাচন। তবে সেখানে সভাপতি হতে চান না পাপন। জানিয়েছেন নতুন কাউকে বিসিবি বস হিসেবে দেখতে চান। তবে বর্তমান বাস্তবাতয়ায় সেটি যেন এক প্রকার অসম্ভবই। যা মানছেন পাপন নিজেও। আজ গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বিষয়টা এমন হয়েছে যে তিনি মারা না যাওয়ার আগ পর্যন্ত কেউ বিসিবি সভাপতি হবেন না। তবে সেই ধারা পরিবর্তন করতে চান তিনি।

পাপন বলেন, ‘আমি যদি এখানে থাকি, এমন একটা জিনিস মনে হচ্ছে যে আমি মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত আর কেউ এই পদ নিতে চাইবে না। আমি চাই, আমার বোর্ডে যে-ই আসুক তাদের চ্যালেঞ্জ করা উচিত, আমি প্রেসিডেন্ট হতে চাই। তারা বলুক…এখন তো কেউ বলে না।’

‘এটি ভালো লক্ষণ নয়, এটা আপনাদেরকে বলতে পারি। কারোর জন্য কিছুই আটকে থাকে না। আমাদের পাইপলাইন থাকা উচিত, যারা নতুন নতুন দায়িত্ব নেবে। এটার জন্য আমি চাচ্ছি, নেতৃত্ব গড়ে ওঠা উচিত। বাংলাদেশে নেতৃত্বের অভাব নেই। তবে কোনো কারণে কেউ আসতে চায় না। পরিচালক সবাই হতে চায়। এমন কেউ নেই যে পরিচালক হতে চায় না। কিন্তু প্রেসিডেন্ট পদের কথা বললেই কেউ নাম বলে না। কেন বলে না, তা আমি জানি না।’ যোগ করেন পাপন।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা