আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্ত, ভাগ্যিস দিল্লী জিতেছে, না হলে খুব খারাপ হতো!

স্পোর্টস ডেস্ক:: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ১৪তম আসরের দ্বিতীয় পর্বের ম্যাচগুলোতে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত নিয়ে নাখোশ হচ্ছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তারা। তৃতীয় আম্পায়ারের আউট না দেওয়ার ‘বিতর্ক’র রেশ থাকতে থাকতেই এবার নো-বল নিয়ে ‘বিতর্ক’ তৈরি হয়েছে। রোববার রোববার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরু ও পাঞ্জাব কিংসের ম্যাচের দেবদত্তের আউট নিয়ে বিতর্কের পর এবার দিল্লী ক্যাপিটালস ও চেন্নাই সুপার কিংসের ম্যাচে নো-বল কাণ্ড নিয়ে শুরু হয়েছে সমালাচনা।

সোমবারের ম্যাচটিতে শেষ ওভারে দিল্লীর জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিলো মাত্র ৬ রান। চেন্নাইয়ের বোলার ব্র্যাভো শেষ ওভারের দ্বিতীয় বলটি বেশ বাইরে করেন। বল অফ স্ট্যাম্পের অনেক বাইরে তথা পিচের বাইরে পড়ে। এমনকি উইকেটরক্ষক ধোনী বলটি গ্লাভস বন্দী করতে পারেননি। উইকেটে থাকা হেটমায়ার সিঙ্গেল রান নেন। ফিল্ড আম্পায়ার অনিল চৌধুরী প্রথম নো-বলের সিদ্ধান্ত দেন। এরপরই তিনি তৃতীয় আম্পায়ার সঙ্গে কথা বলে ওয়াইডের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেন। বাতিল করেন নো-বলের সিদ্ধান্ত। অথচ ক্রিকেটীয় আইনের ৬১ ধারা অনুযায়ী পিচের বাইরে বল পড়লে সেটা নো-বল হিসেবে বিবেচ্য হবে।

টিভি আম্পায়ার নো-বলের সিদ্ধান্ত বাতিল করে ওয়াইডের সিদ্ধান্ত দেওয়ায় এনিয়ে বেশ সমালোচনা চলছে। সাবেক ক্রিকেটার সুনীল গাভাস্কার সমালোচনা করেছেন তৃতীয় আম্পায়ার। জানিয়েছেন, এই ম্যাচে দিল্লী না জিতলে খুব খারাপ হতো। তিনি বলেন, ‘‘এটা পরিস্কার নো-বল। আমরা তৃতীয় আম্পায়ারের এমন কিছু সিদ্ধান্ত এবার দেখছি, যেগুলা মোক্কম সময়ে ম্যাচর ফল বদলে দিতে পারে। এটা হওয়া একেবারেই উচিত নয়। আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্ত ম্যাচের ফল বদলে দিচ্ছে, এটা দুর্ভাগ্যজনক। ভাগ্যিস দিল্লী জিতেছে। না হলে খুব খারাপ হতো।’’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০