ইংল্যান্ডের পর এবার করোনাকালের ক্রিকেটে উদাহরণ হচ্ছে ক্যারিবিয়ানরা

স্পোর্টস ডেস্কঃ করোনাকে জয় করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরিয়েছে ইংল্যান্ড। যেখানে তাঁদের ডাকে সাড়া দিয়ে এগিয়ে এসেছে উইন্ডিজ। যার জন্য করোনাকালে সিরিজ খেলছে এই দুই দল। উইন্ডিজের সাথে সিরিজ খেলে, আয়ারল্যান্ড ও পাকিস্তানকে আতিথ্য দেবে ইংলিশরা। এরপর অস্ট্রেলিয়ার সাথেও কথা হচ্ছে সিরিজ খেলার।

আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজন করে নিজেদেরকে উদাহরণ সৃষ্টি করছে ইংল্যান্ড। এবার ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট আয়োজন করে নিজেদের উদাহরণ হিসেবে তৈরি করতে যাচ্ছে ক্যারিবিয়ানরা। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) ড্রাফটস অনুষ্ঠিত হয়ে গেছে ইতিমধ্যেই। এবার চুড়ান্ত করা হলো আসরের ভেন্যু, খেলা শুরু ও শেষ হওয়ার দিনক্ষণ।

আগামি ১৮ আগস্ট থেকে শুরু হয়ে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে সিপিএলের অষ্টম আসর। করোনার কারণে এবারের আসর শুধুমাত্র অনুষ্ঠিত হবে ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোতে। ব্রায়ান লারা ক্রিকেট একাডেমি ও কুইন্স পার্ক ওভাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সবগুলো ম্যাচ। আর এর জন্য ত্রিনিদাদ সরকারের অনুমতিও পেয়েছে সিপিএল কর্তৃপক্ষ। তবে এর জন্য বেঁধে দিয়েছে কিছু শর্ত।

টুর্নামেন্টে অংশ নেয়া খেলোয়াড়, অফিসিয়ালসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে চারবার করোনা পরীক্ষা করানো হবে। প্রথম ধাপে ত্রিনিদাদে পৌঁছানোর করোনা পরীক্ষা করা হবে। রিপোর্টে নেগেটিভ আসাদেরই কেবল মিলবে ত্রিনিদাদে প্রবেশ করার অনুমতি। এরপর ত্রিনিদাদে পৌঁছে দ্বিতীয় দফায় করোনা পরীক্ষা দিতে হবে সবাইকে। এখানে ফলাফল নেগেটিভ এলে হোটেলে সাত দিনের আইসোলেশনে থাকতে হবে।

আইসোলেশন শেষে তৃতীয় দফায় করোনা পরীক্ষা করা হবে।সেখানে নেগেটিভ আসলে পৃথক গ্রুপে ভাগ হয়ে দলগুলো অনুশীলনের অনুমতি পাবে। এরপর সবার আইসোলেশন শেষ করে খেলা শুরুর কিছু দিন আগে চতুর্থ ও শেষ দফায় করোনা পরীক্ষা করা হবে। সব খেলোয়াড় তখন একত্রে হওয়ার সুযোগ পাবেন। এবারের আসর দর্শকশূন্য গ্যালারিতে হবে বলে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। মানা হবে সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা