এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হতে যাচ্ছে রোনালদোর জুভেন্টাস!

স্পোর্টস ডেস্কঃ সিরি আ’তে বর্তমানে জুভেন্টাসের অবস্থা অনেকটাই নাজুক। ইতিমধ্যেই টানা নয় বারের শিরোপা আধিপত্য হারিয়েছে দলটি। পয়েন্ট টেবিলে সেরা চারে থেকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোরা আগামী মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলতে পারবে কিনা দলটি, সেই নিয়ে রয়েছে শঙ্কা। এর মধ্যেই আবার নতুন করে নিষেধাজ্ঞার শঙ্কা জেগেছে দলটির।

ইউরোপিয়ান সুপার লিগ (ইএসএল) থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার না করে নিলে ইতালিয়ান লিগ সিরি-আ থেকে নিষিদ্ধ করার হুমকি দিয়েছেন ইতালিয়ান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট গ্যাব্রিয়েল গ্রাভিনা। গ্যাব্রিয়েল সরাসরি হুমকি দিয়ে বলেছেন যদি প্রস্তাবিত ইএসএল থেকে নাম প্রত্যাহার করে না নেয়, তাহলে জুভেন্টাসকে এক বছরের নিষিদ্ধ করা হবে।

এই বিষয়ে গ্রাভিনা সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘এখানে আইনটা খুবই পরিষ্কার। আগামী মৌসুমের রেজিস্ট্রেশন শুরুর পরও যদি দেখি যে, জুভেন্টাস ইএসএলের অংশ তাহলে পরের মৌসুমের জন্য সিরি-আ’তে তাদেরকে নিষিদ্ধ করা হবে। এটা সব সমর্থকের জন্যই হবে লজ্জাজনক একটি বিষয়। তবে এখানে তো নিয়ম-নীতি আছে এবং সেগুলো সবার জন্যই সমান।’

সরাসরি যে ১২টি ক্লাব ইএসএলের যাত্রার শুরু থেকে ছিল, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিল জুভেন্টাস। ইতিমধ্যে ৯টি ক্লাব নাম সরিয়ে নিলেও, এখনও রয়ে গেছে দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা ও জুভেন্টাস।

শুরুতে যোগ দিলেও, চাপের মুখে পরবর্তীতে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয় ইংল্যান্ডের বিগ সিক্স খ্যাত ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, ম্যানচেস্টার সিটি, আর্সেনাল, লিভারপুল, চেলসি ও টটেনহ্যাম হটস্পার। এছাড়া এই ছয় দলের সাথে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেয় স্পেনের অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ, ইতালির এসি মিলান ও ইন্টার মিলান।

জুভেন্টাস, বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ এখনও রয়ে গেছে ইএসএলে। তবে ইতিমধ্যেই উয়েফা ঘোষণা দিয়েছে, যদি তারা সরে না আসে তাহলে এই তিনটি ক্লাবকেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে অন্তত দুই বছরের জন্য বহিষ্কার করা হবে। এর জবাবে রিয়াল-বার্সা-জুভেন্টাসও একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেছিল। তবে এর একদিন পরই এবার খোদ নিজ দেশের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন থেকে হুমকি পেল জুভেন্টাস।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা