‘কোহলি কখনোই তরুণদের আদর্শ হতে পারবে না’

স্পোর্টস ডেস্কঃ তৃতীয় দিনের খেলা শেষে রোমাঞ্চ ছড়াচ্ছে কেপ টাউন টেস্ট। দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারতের মধ্যকার তৃতীয় ও শেষ টেস্টকে ক্রিকেটীয় রোমাঞ্চ ছাড়িয়ে এখন চলছে বিতর্ক। ঘটনার কেন্দ্রবিন্দুতে একটি এলবিডব্লিউর রিভিউ ডিসিশন নিয়ে।

নিজেদের দ্বিতীয় ও ম্যাচের চতুর্থ ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকা তখন রান তাড়ায় ব্যস্ত। ২১তম ওভারে অশ্বিনের বলে ডিন এলগারকে এলবিডব্লিউ দেন আম্পায়ার মারাইস এরাসমাস। এরপর রিভিউ নেন এলগার। সেই রিভিউতে দেখা যায়, বল লাইনে পিচ করে এলগারের হাঁটুতে এসে আঘাত হানে। বলের অবস্থানটা অনেক নিচু হওয়ায় আউটই মনে হচ্ছিল। কিন্তু বল ট্র্যাকিংয়ের সময় দেখা যায়, স্টাম্পের ওপর দিয়ে চলে গেছে সেটি। এলগার উইকেটে টিকে যান।

আর এতেই বিতর্ক তৈরি হয়। ভারতের ক্রিকেটার তো বটেই, মাঠে থাকা এরাসমাসও বিশ্বাস করতে পারছেন না সেটা। এছাড়া ক্রিকেট বিশ্বও হতবাক, কিভাবে সম্ভব। কিন্তু এসবের মাঝে ভারতীয় ক্রিকেটাররা যেটি করেছেন, সেটা সবকিছুর উর্ধ্বে। স্টাম্প মাইকে শোনা যায় সহ-অধিনায়ক লুকেশ রাহুল বলছেন, আমাদের ১১ জনের বিপক্ষে পুরো দেশ (দক্ষিণ আফ্রিকা) খেলছে। পরবর্তীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রবিচন্দ্রন অশ্বিন সিরিজের ব্রডকাস্ট কোম্পানি সুপারস্পোর্টসকে দায়ী করে লেখেন, জয়ের জন্য ভিন্ন ভালো কোনো পরিকল্পনা বের করো, সুপারস্পোর্টস।

তবে সবকিছুকে ছাপিয়ে গেছে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির মন্তব্য। তিনি স্টাম্প মাইকের কাছে এসে বলেন, ‘তোমাদের দলের দিকে নজর দাও বলকে উজ্জ্বল করা সময়। শুধুমাত্র প্রতিপক্ষের দিকেই খেয়াল রাখলে হবে না। সবসময়ই শুধু লোকজনকে ধরার চেষ্টা।’ রিভিও নিয়ে সবাই অবাক হলেও, কোহলির এভাবে করা মন্তব্যকে ভালোভাবে নেয়নি কেউই।

সমালোচনায় মুখর গোটা ক্রিকেট দুনিয়া। স্পোর্টসম্যানশিপ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হচ্ছে। সাবেক ক্রিকেটাররাও সেখান থেকে বাদ যাচ্ছেন না। ভারতের সাবেক তারকা ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীরও এটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি মনে করেন, কোহলি কখনোই তরুণ ক্রিকেটারদের আদর্শ হতে পারবেন না।

গম্ভীর বলেন, ‘কোহলি অপরিণত একজন। ভারতীয় অধিনায়ক এরকমটা বলছেন স্ট্যাম্প মাইকে, এটার চেয়ে বাজে কিছু আর হতে পারে না। এসব কাজ করে কখনো তরুণদের জন্য আদর্শ হতে পারবে না।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা