ওয়ানডে সিরিজ জয় দিয়ে শুরু বাংলাদেশ ইমার্জিং নারী দলের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং নারী দলের বিপক্ষে দাপুটে জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ ইমার্জিং নারী দল। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে ১৯৫ রান করে স্বাগতিকরা। জবাব দিতে নেমে টাইগ্রেসদের স্পিন তোপে কাবু প্রোটিয়াদের এই নারী দল। অলআউট হওয়ার আগে করেছে ১৪১ রান। ৫৪ রানের জয়ে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেল নিগার সুলতানা জ্যোতির দল।

রোববার বাংলাদেশের করা ১৯৫ রানের জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম উইকেটে পায় ৪১ রানের পার্টনারশিপ। আন্দ্রেয়া স্টেইন ও রবিন শেরলির ব্যাটে দারুণ শুরু পাওয়া সফরকারী শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন পেসার জাহানারা আলম। রুমানা আহমেদের ক্যাচে ফেরার আগে শেরলি করেন ৩৪ বলে ১৫ রান। এরপর ক্রিস্টি থমসনকে ফেরান রুমানা। উড়িয়ে এসে মারার চেষ্টা চালানো থমসনকে স্ট্যাম্পড করেন উইকেটকিপার শামিমা সুলতানা। ২৯ বল খেলে ১৩ রান করেন তিনি।

এরপর সানজিদা আক্তার মেঘলার স্পিনে ফেরেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৪১ রান করা স্টেইন। ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণার ক্যাচে আউট হয়ে ফেরার আগে ৮৩ বল খেলেন প্রোটিয়াদের এই নারী ক্রিকেটার। তার ৪১ রানের ইনিংসে ছিল চারটি ৪।

দক্ষিণ আফ্রিকার টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার দিনে হাল ধরতে পারেন নি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানরাও। এতে মূল কৃতিত্ব বাংলাদেশের সালমা-রুমানা-মেঘলাদের। সফরকারী দলের ব্যাটিং লাইন গুঁড়িয়ে দেওয়ার কাজ ভালোভাবেই করেছেন এই বোলাররা।

৩ উইকেট নিয়েছেন সালমা খাতুন। ২টি করে উইকেট জাহানারা আলম-রুমানা আহমেদ ও সানজিদা আক্তার মেঘলা। ৭২ রান করা ফারজানা হক পিংকি হয়েছে ম্যাচসেরা।

এর আগে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নামা বাংলাদেশকে দারুণ শুরু এনে দেন দুই ওপেনার মুরশিদা খাতুন ও শামিমা সুলতানা। দুজনের ৭৮ রানের প্রথম উইকেট জুটির পরও বড় পুঁজি পায় নি স্বাগতিকরা। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান পিংকির ৭২ রানের ইনিংসে স্কোর বোর্ডে ১৯৫ রান করেছিল বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

বাংলাদেশ ইমার্জিং নারী দল ১৯৫/৯ (৫০ ওভার)
ফারহানা ৭২*, মুরশিদা ৪৫, শামীমা ৩৪;
জেইন ৩/৩২।

দক্ষিণ আফ্রিকা ইমার্জিং নারী দল ১৪১/১০ (৪৪.৫ ওভার)
স্টেইন ৪১;
সালমা ৩/২৫, রুমানা ২/১৬, জাহানারা ২/১৮, মেঘলা ২/২৭।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/১১০