করোনামুক্ত হয়ে একাদশে ফিরেই ট্রেভিস হেডের সেঞ্চুরি

স্পোর্টস ডেস্কঃ করোনায় আক্রান্ত হয়ে ট্রেভিস হেড মিস করেছেন চতুর্থ টেস্ট। তার জায়গায় একাদশে এসেই উসমান খাজা টানা দুই ইনিংসে সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। যার ফলে হেডের পঞ্চম টেস্টে খেলা নিয়ে ছিল কিছুটা সংশয়। তবে খাজাকে ওপেনিংয়ে দিয়ে হেডকে একাদশে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। আর সেই একাদশে ফেরানোর প্রতিদান দিলেন এই বাঁহাতি ব্যাটার।

হোবার্টে আজ থেকে শুরু হওয়া অ্যাশেজ সিরিজের পঞ্চম ও শেষ টেস্টে দারুণ এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন হেড। তবে হেডের সেঞ্চুরির দিনে ব্যর্থ হয়েছেন ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খাজা ও স্টিভ স্মিথরা। গোলাপি বলে দিবা-রাত্রির টেস্টে প্রথম দিনে ৬ উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া সংগ্রহ করেছে ২৪১ রান। বৃষ্টি বিঘ্নিত প্রথম দিনে খেলা হয়েছে কেবল ৫৯.৩ ওভার।

টস হেরে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া ইনিংসের শুরতেই বেশ ধাক্কা খায়। দলীয় মাত্র ১২ রানের মধ্যে দলের তিন গুরুত্বপূর্ণ ব্যাটার ডেভিড ওয়ার্নার (০), উসমান খাজা (৬) ও স্টিভ স্মিথকে (০) হারায় অজিরা। এরপর স্বাগতিকদের হাল ধরেন মার্নাস ল্যাবুশানে ও হেড। ৭১ রানের জুটি গড়ে দলকে কিছুটা স্বস্তি এনে দিয়েছেন দু’জন।

তবে ল্যাবুশানে ৫৩ বলে ৯ বাউন্ডারিতে ৪৪ রান করে ফিরলে, পুনরায় ধসের শঙ্কা জেগে বসে। তবে সেমনটা হতে দেননি হেড। উইকেটে আসা ক্যামেরন গ্রিনকে সাথে নিয়ে গড়ে তুলেন প্রতিরোধ। পঞ্চম উইকেটে দু’জনের ১২১ রানের জুটি স্বাগতিকদের একটি সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যায়। হেডের বিদায়ে ভাঙে সেই জুটি ভাঙে।

তবে যাবার আগে খেলে যান ১১৩ বলে ১৩ বাউন্ডারিতে ১০১ রানের ইনিংস। চলতি অ্যাশেজে দ্বিতীয় এবং ক্যারিয়ারের চতুর্থ টেস্ট সেঞ্চুরি এটি হেডের। হেডের বিদায়ের পর দলীয় ২৩৬ রানের মাথায় ফিরে যান গ্রিনও। ড্রেসিং রুমের পথ ধরার আগে ১০৯ বলে ৮ বাউন্ডারিতে ৭৪ রানের ইনিংস খেলেন গ্রিন। ১০ রানে অ্যালেক্স ক্যারিয় ও কোনো রান না করে মিচেল স্টার্ক অপরাজিত থেকে মাঠ ছেড়েছেন।

ইংল্যান্ডের হয়ে এদিন দুটি করে উইকেট শিকার করেছেন স্টুয়ার্ট ব্রড ও অলি রবিনসন। মার্ক উড ও ক্রিস ওকস ১টি করে উইকেট লাভ করেছেন।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা