কারো কাছেই ভোট চাননি পাপন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ এবারের বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নির্বাচনে ছিল না কোনো প্যানেল। নাজমুল হাসান পাপন জানিয়েছিলেন সবাই ব্যক্তিগতভাবে নির্বাচন করে আসবে। যার ফলে প্যানেল ছাড়াই হয়েছে নির্বাচন। পাপনও করে এসেছেন নির্বাচন।

গতকাল ৬ অক্টোবর হওয়া বিসিবি নির্বাচনে ক্লাব কোটায় ক্যাটাগরি-২ থেকে পরিচালক পদে নির্বাচন করেন পাপন। এই ক্যাটাগরিতে মোট ভোটার ছিলেন ৫৭ জন কাউন্সিলর। যেখান ভোট দিয়েছেন ৫৩ জন। এই ৫৩ জনের সবকটি ভোটই পেয়েছেন পাপন। যার ফলে স্বাভাবিকভাবেই সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে পাশ করেছেন। এর বাইরে গোলাম মর্তুজা পাপ্পা ৫৩ ভোট ও এনায়েত হোসেন সিরাজ সর্বোচ্চ ৫৩ ভোট পেয়ে পরিচালক নির্বাচিত হয়েছেন।

সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে পরিচালক নির্বাচিত হওয়া পাপন আজ সভাপতিও নির্বাচিত হয়েছেন সবার সম্মতিক্রমে। টানা চতুর্থবারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হয়ে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন পাপন। যেখানে এই অভিজ্ঞ ও জনপ্রিয় সংগঠক জানান তিনি কারো কাছে ভোটই চাননি। কোনো কাউন্সিলরের কাছেই ভোট চাননি। একটা পরীক্ষা করতে চেয়েছিলেন শুধু। এছাড়া যাদের ভোট আশা করেননি, তারাও তাকে ভোট দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

পাপন বলেন, ‘সত্য কথা, কারো কাছে ভোট চাইনি আমি। আমার নাম হয়তো অনেকের কাছেই গিয়েছে। কিন্তু আমি কারো কাছেই ভোট চাইনি। কারণ আমি একটা পরীক্ষা করতে চেয়েছিলাম বাংলাদেশের কি পরিস্থিতি, ভোটাররা কি মনে করে। ভোট না চেয়ে কতদূর যেতে পারি।’

যাদের ভোট আশা করেননি, তাদের ভোট পাওয়া প্রসঙ্গে পাপনের ভাষ্য, ‘নির্বাচনটা সবসময় আলাদা জিনিস, আমি যেটা লক্ষ্য করে দেখলাম। আমি যাদের ভোট জীবনেও পাবো বলে আশা করিনি, তারাও আমাকে ভোট দিয়েছে। নির্বাচনটা সম্পূর্ণ আলাদা জিনিস। আমি যতই জনপ্রিয় হই না কেন, আমি যখন নির্বাচনে যাচ্ছি তখন কাউন্সিলররা কি করবেন এটা ধারণা করা খুব কষ্টকর।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা