কুশিয়ারা নাকি সিসিক, বিগ ফাইনালে টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের শিরোপা যাবে কার ঘরে?

সাগর রায়ঃ বাতাসে বহিছে প্রেম, নয়নে লাগিল নেশা, কারা যে ডাকিল পিছে! বসন্ত এসে গেছে…। ভালোবাসার বসন্ত চলছে, তবে একই সময়ে সিলেটের ক্রিকেটেও লেগেছে বসন্তের ছোঁয়া। প্রকৃতির সাথে তাল মিলিয়ে নতুন করে স্টেডিয়ামের চত্ত্বর পেয়েছিল প্রাণের সঞ্চার। ক্রিকেটার-সংগঠক-দর্শক-গণমাধ্যমের স্টেডিয়াম পাড়ায় দৌড়ঝাঁপের চিত্র নতুন করে সিলেটের ক্রিকেটে জোয়ার তৈরি করে দিয়েছে।

তবে ১৩ দিনের মিলন মেলার পরিসমাপ্তি ঘটতে যাচ্ছে আজ শনিবার। ফাগুনের আগুন ঝড়ানো বিকেল ৫টায় শুরু হওয়া বিগ ফাইনালের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে সিলেট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট ২০২১’র।  কার হাতে উঠবে সিলেট ক্রিকেটার্স এসোসিয়েশনের বর্ণাঢ্য এই আয়োজনের প্রথম আসরের শিরোপা, সেই প্রশ্ন এখন স্থানীয় ক্রিকেট পাড়ায়। কুশিয়ারা রয়্যালস নাকি সিলেট সিটি কর্পোরেশন ওয়ারিয়র্স, ট্রফির মালিক হবে কোন দল?

অনিশ্চয়তার খেলা টি-টোয়েন্টিতে ম্যাচের পরিস্থিতি পাল্টে যেতে পারে যেকোনো মূহুর্তেই। এই সত্যকে মাথায় রেখেই ফেবারিট হিসেবে কে নামছে মাঠে, সেটি বলার অবকাশ নেই। কেননা দুই ফাইনালিস্ট দলই পয়েন্ট টেবিলের তিন এবং চার নম্বরে ছিল। সেখান থেকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুই দলকে আলাদা সেমিফাইনালে পরাজিত করেই শিরোপা লড়াইয়ের শেষ ধাপে পা রেখেছে।

দুই দলই গ্রুপ পর্বে দুটি করে জয়-পরাজয়ের দেখা পেয়েছে। সেমিফাইনালে জাকির হাসানের নেতৃত্বাধীন সিসিক ওয়ারিয়র্স গ্রুপ পর্বে অপরাজিত থাকা সিলেট ইউনাইটেডকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে উঠেছে। অপরদিকে ইমতিয়াজ হোসেন তান্নার কুশিয়ারা রয়্যালস প্রথম সেমিফাইনালে স্টার প্যাসিফিককে হারিয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে ফাইনালে।

সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ফাইনালে আজ অপেক্ষা করছে এক ঝাঁক তারকা মেলবন্ধনের। কেননা ফরহাদ রেজা, সানজামুল ইসলাম, মুক্তার আলি, আল আমিন জুনিয়রের মতো জাতীয় পর্যায়ে খেলা ক্রিকেটাররা এদিন মাঠ মাতাবেন। এর বাইরেও জাতীয় দল এবং আশেপাশে থাকা ক্রিকেটারদের দেখা যাবে। মাঠের বাইরেও তারকার কমতি থাকছে না। টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টের ফাইনালে উপস্থিত থাকবেন সদ্য ক্রিকেটকে বিদায় বলা এবং বিসিবির ক্রিকেট অপারেশন্সের নতুন ম্যানেজার হিসেবে নিয়োগ পাওয়া শাহরিয়ার নাফিসও। এছাড়া সিলেটের সাবেক ক্রিকেটার-সংগঠকদেরও দেখা মিলবে এদিন।

বিকাল পাঁচটায় শুরু হওয়া ফাইনালের মহারণে, ডাগ আউট এবং অফিসিয়ালদের আসনগুলোও হট সিটে পরিণত হবে। রয়্যালস শিবিরের ডাগ আউটে থেকে মাস্টারমাইন্ডের ভূমিকায় থাকবেন কোচ মাহমুদ ইমন, একইভাবে ওয়ারিয়র্সদের শিবিরে দেখা যাবে নাঈম সালেহকে। অফিসিয়ালদের আসনে লড়াইটা হবে ব্যবসায়ী হুমায়ূন আহমেদ-সাইম আহমেদের সাথে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরির মধ্যে।

দর্শকদের জন্য গ্যালারি থাকবে উন্মুক্ত। বিগ ফাইনালের লড়াইয়ে দর্শকদের মাঠে এসে খেলোয়াড়দের উৎসাহিত করার অনুরোধ জানিয়েছে আয়োজকরা। তবে সব ছাপিয়ে ফাইনাল হবে জমজমাট, এমনটাই প্রত্যাশা সবার। এর বাইরে এনামুল হক জুনিয়রের নেতৃত্বাধীন সিলেট ক্রিকেটার্স এসোসিয়েশনের দারুণ এই উদ্যোগের শেষটা যেন জ্বলমলে হয়, সেই প্রত্যাশাও থাকবে। বিজয়ের হাসিটা যেই হাসুক না কেন, এমন মঞ্চের দারুণ স্মৃতিময়ের গল্প শেষে সিলেটের ক্রিকেট যে নতুন করে উজ্জীবিত হবে যে সেটি বলার অপেক্ষা রাখে না।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা