ক্যারিয়ারের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালেই ব্রাজিলিয়ান তারকার নৈপুণ্য

স্পোর্টস ডেস্কঃ ক্যারিয়ায়ের প্রথম চ্যাম্পিয়ন্স লিগ কোয়ার্টার ফাইনালেই নৈপুণ্য দেখিয়েছেন ভিনিসিয়াস জুনিয়র। রিয়াল মাদ্রিদকে এই তারকা ফুটবলার এনে দিয়েছেন জয়ও। লিভারপুলের বিপক্ষে প্রথম লেগের হাইভোল্টেজ ম্যাচে ৩-১ গোলের বড় জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। দলকে সেমিফাইনালের পথে এক ধাপ এগিয়ে নেওয়ার পথে জোড়া গোল করেছেন ভিনিসিয়াস।

রিয়ালের ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে দুই দলের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে শুরু থেকেই জমে উঠেছিল ম্যাচ। ম্যাচের হিসেবে বল দখলে স্বাগতিকদের কিছুটা এগিয়ে ছিল লিভারপুল। কিন্তু গোলের খেলা ফুটবলে গোলটাই যে আসল। যেখানেই বাজিমাত করেছে জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা।

২৭তম মিনিটে দুর্দান্ত এক আক্রমণে দলকে এগিয়ে নেন ভিনিসিয়াস। প্রতিপক্ষের রক্ষণ বেশ খানিকটা এগিয়ে থাকায় টনি ক্রুসের উঁচু করে বাড়ানো বল দুই ডিফেন্ডারের মাঝে বুক দিয়ে বল নামিয়ে ডি-বক্সের ভেতরে ঢুকে নিচু শটে জাল খুঁজে নেন ব্রাজিলিয়ান তারকা। আর এতেই এই ফরোয়ার্ড বনে যান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে রিয়ালের দ্বিতীয় সর্বকনিষ্ঠ গোলদাতা (২০ বছর ২৬৮ দিন)। এ তালিকার শীর্ষে রাউল গনসালেস (১৮ বছর ২৫৩ দিন)।

ম্যাচের ৩৬তম মিনিটেই ব্যবধান দ্বিগুণ করে রিয়াল। অলরেডদের রক্ষণের ভুলের সুযোগ নিয়ে টনি ক্রুসের দ্বিতীয় এসিস্টে গোল করেন এবার মার্কো অ্যাসেনসিও। প্রথমার্ধে পিছিয়ে থাকলেও, দ্বিতীয়ার্ধে গোছানো ফুটবল খেলে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল অলরেডরা। ৫১তম মিনিটে মোহাম্মদ সালহর গোলে ব্যবধানও কমায় দলটি।

তবে ৬৫তম মিনিটেই ফের গোল হজম করে সফরকারীরা। ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল পূরণ করেন ভিনিসিয়াস। শেষ পর্যন্ত ৩-১ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে প্রতিযোগিতার রেকর্ড ১৩ বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল। অপরদিকে হতাশা নিয়ে ১৪ এপ্রিল অ্যানফিল্ডে দ্বিতীয় লেগের অপেক্ষায় মাঠ ছাড়ে ইয়ূর্গেন ক্লপ শিষ্যরা। সেখানে দুর্দান্ত খেলে ঘুরে দাঁড়াতে পারলেই কেবল মিলবে সেমির টিকিট।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা