কড়া নিয়মে সিপিএল, বন্দী থাকবেন ক্রিকেটাররা!

স্পোর্টস ডেস্ক:: ওয়েস্ট ইন্ডিজের ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টি-২০ ক্রিকেট লিগে সিপিএল শুরুর সব প্রস্তুুতি প্রায় সম্পন্ন। দলগুলোও নিজেদের স্কোয়াড গুছিয়ে নিয়েছে। তবে লিগ মাঠে গড়ানোর আগে কড়া নিদর্শে দিলো ত্রিনিদাদ অ্যান্ড টোবাগোর স্থানীয় সরকার। এক প্রকার বন্দী থেকেই সিপিএলে খেলতে হবে ক্রিকেটারদের।

এক শহরের দু’টি ভেন্যুতে সব ম্যাচ আয়োজন হবে। নির্দিষ্টি হোটেল এবং ম্যাচ ভেন্যুর বাইরে যাওয়ার সুযোগ থাকবে না ক্রিকেটার, কোচ, অফিসিয়ালদের। এমনকি হোটেলের বাইরেও বেরুনি যাবে না। স্টেডিয়ামে গিয়ে ড্রেসিং রুমেই সীমাবদ্ধ থাকতে হবে। অনুশীলন ভেন্যুর বাইরেও যাওয়ার সুযোগ থাকবে না।

টুর্ণামেন্ট শুরুর ১৪ দিন আগে পৌছাতে হব সকল খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের। এরপর স্বেচ্ছায় আইসোলেশনে থাকতে হবে। এরপরই অনুশীলনসহ ক্রিকেটীয় কার্যক্রমে অংশ গ্রহণের সুযোগ মিলবে। আগস্টে শুরু হওয়া এই লিগে এমন সব কড়াকড়ি নিয়ম মেনেই খেলতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে। করোনাভাইরাসের এমন ভয়াবহ পরিস্থিতি এর কোনো বিকল্পও নেই আয়োজকদের হাতে।

সিপিএলের ছয়টি ফ্রাঞ্জাইজিকে নিয়ে আগামি ১৮ আগস্ট থেকে ২০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মাঠে গড়াবে সিপিএল। স্বাস্থ্য বিধি মেনেই খেলতে হবে ক্রিকেটারদের। কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির কারো মধ্যে করোনার উপসর্গ দেখা দিলেই তাকে পৃথক হয়ে যেতে হবে। থাকতে হবে একা। এরপর করোনা টেস্টের ফলাফল নেগেটিভ এলেই তিনি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পারবেন। এছাড়াও ভাইরাস প্রতিরোধে অন্যান্য বিধি নিষেধতো আছেই।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০