গার্দিওলার কণ্ঠে হতাশা

0
149

স্পোর্টস ডেস্কঃ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ড্র করেছে আরবি লাইপজিগ ও ম্যানচেস্টার সিটি। ম্যাচটি ১-১ ড্র হয়েছে। প্রথমার্ধে রিয়াদ মাহরেজ সিটিকে এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরান ইয়োস্কো গাভারদিওল। পুরো ম্যাচে নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন সিটির বড় তারকা আর্লিং হলান্ড।

ম্যাচ শেষে হতাশা প্রকাশ করলেন কোচ পেপ গার্দিওলা। তবে ফলের জন্য নয়, খেলোয়াড়দের ভেঙে পড়ার কারণে। শেষ বাঁশি বাজার পর খেলোয়াড়দের একত্র করেন গার্দিওলা। খেলোয়াড়রা ম্যাচ শেষ হওয়ার পর মাথা নত করায় অখুশী তিনি। ম্যাচ শেষে স্প্যানিশ কোচ বলেছেন, ‘তাদের মাথা নত ছিল। আমি বলেছি, ‘তোমরা কেন মাথা নত করেছো, মাথা উঁচু রাখো। তোমরা যেভাবে খেলেছো, সত্যিই ভালো ছিল।’ লোকেরা যদি পছন্দ না করে, ব্যাপার নয়।’

২৭ মিনিটে প্রতিপক্ষের ভুল পাসে বল পেয়ে যান জ্যাক গ্রিলিশ। তার থেকে বল নিয়ে ইলকাই গিনদোয়ান পাস পাড়ান মাহরেজকে। বক্সের ভেতর থেকে আলজেরীয় এই ফরোয়ার্ড সুযোগ হাতছাড়া করেননি। ৩০ মিনিটে আসতে পারত আরেক গোল। কর্নার থেকে পাওয়া বলে মাথা লাগাতে পারেননি রদ্রি। তিন মিনিট পর গ্রিলিশ হতাশ হন অল্পের জন্য।

দ্বিতীয়ার্ধে স্পষ্টতই পাল্টে যায় দুই দলের খেলা। এতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন লাইপজিগের বদলি খেলোয়াড়রা। ফলও পায় দলটি। ৭০ মিনিটে শর্ট কর্নার থেকে মার্সেল হালস্টেনবার্গের ক্রসে সবার উঁচুতে লাফিয়ে দারুণ হেডে জাল খুঁজে নেন ক্রোয়াট ডিফেন্ডার গাভারদিওল।

গোল হজমের পর কিছুটা আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে সিটি। তবে বিস্ময়করভাবে শুরুর একাদশে কোনো পরিবর্তন আনেননি সিটি কোচ পেপ গার্দিওলা। ম্যাচে অসুস্থতার কারণে ছিলেন না সিটিজেনদের বড় ভরসা কেভিন ডি ব্রুইনে। এছাড়া অ্যামেরিক লাপোর্তও খেলেন নি গতরাতের ম্যাচটি। আগামী ১৪ মার্চ সিটির মাঠে ফিরতি লেগে নির্ধারিত হবে দুই দলের ভাগ্য।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here