গালিবের টানা দ্বিতীয় ফিফটি, ঢাকার বিপক্ষে এগিয়ে সিলেট

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কক্সবাজারে টায়ার-১’এর ম্যাচে তৃতীয় দিনের শুরুটায় রাহাতুল ফেরদৌস জাভেদের ৭ উইকেট শিকারের পর শেষটায় আসাদুল্লাহ গালিবের ফিফটি। এই দু’জনের কৃতিত্বে সিলেট বিভাগীয় দলের নিয়ন্ত্রণে ঢাকা বিভাগের বিপক্ষে দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচ। গালিবের টানা দ্বিতীয় ফিফটিতে বিশাল লিডের পথে সিলেট।

প্রথম ইনিংসে সিলেটের করা ৩৭০ রানের বিপরীতে ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে আজ ঢাকা অলআউট হয় ২৮০ রানেই। আগের দিন ৮৯ রানে অপরাজিত থাকা শুভাগত হোম এদিন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের ১৩তম সেঞ্চুরি পূরণ করেছেন। ১৩৩ বলে ১৩ চার ও ২ ছক্কায় দলের সর্বোচ্চ ১১৪ রান করে বিদায় নেন এই জাভেদের বলে বোল্ড হয়েই। শুভাগত ছাড়াও জাভেদ একে একে তুলে নেন ঢাকার সাইফ হাসান, তাইবুর রহমান, অধিনায়ক নাদিফ চৌধুরি, আরাফাত সানি জুনিয়র, নাজমুল ইসলাম ও সালাউদ্দিন শাকিলের উইকেট।

সিলেটের হয়ে রাহাতুল ফেরদৌস জাভেদ ২২.১ ওভার বল করে ৩ মেইডেনসহ ৭৫ রান খরচায় ৭ উইকেট লাভ করেন। ইকোনোমি রেট ৩.৩৮। এটিই এই বাঁহাতি স্পিনারের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ইনিংস সেরা ফিগার। আগের ইনিংস সেরা ফিগারটি ছিল ৪৮ রানে ৫ উইকেট। একইসাথে নিশ্চিতভাবেই সেরা ম্যাচ ফিগারও দেখতে চলেছেন। কেননা এর আগে ২৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের ম্যাচের সেরা ফিগার ৭৭ রানে ৬ উইকেট। ইতিমধ্যেই এক ইনিংসে ৭ উইকেট তুলে নিয়ে তাই সেটিকে টপকে যাওয়ার অপেক্ষায় আছেন তিনি। জাভেদ ছাড়াও অভিষিক্ত তানজিম হাসান সাকিব ২টি ও রুয়েল মিয়া ১টি উইকেট লাভ করেন।

৯০ রানের লিড নিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে সিলেট। তবে পঞ্চম ওভারে দলীয় ৯ রানের মাথায়ই ওপেনার শেহনাজ ১ রান করে সুমন খানের বলে আউট হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন। এরপর ৩৩ রানের জুটি গড়ে অমিত ও রিজভী দলকে আশা দেখালেও এরপরই বিপাকে পড়ে যায় সিলেট। দলীয় ৬০ রান পেরোনোর আগেই আরও তিন উইকেট হারিয়ে দল। রিজভী ৩১, অমিত ১১ ও জাকের আলি অনিক ২ রান করে ড্রেসিং রুমের পথ ধরেন।

এরপর দুর্দান্ত ফর্মে থাকা জাকির হাসান ও গালিব মিলে গড়ে তুলেন প্রতিরোধ। পঞ্চম উইকেটে দু’জনের ৬৪ রানের জুটিতে ব্যাকফুটে থেকে উদ্ধার হয় সিলেট। তবে আগের ইনিংসে ১৫৯ রান করা জাকির এই ইনিংসে ৩৩ রান করে ফিরলেই ভাঙে সেই জুটি। উইকেটে এসে টিকতে পারেননি জাভেদ। বল হাতে ৭ উইকেট শিকার করলেও ব্যাট হাতে গোল্ডেন ডাকে ফিরে যান তিনি। তবে দিনের বাকিটা সময় আর কোনো উইকেট হারাতে দেননি গালিব এবং অভিষিক্ত সাকিব।

দু’জনের দৃঢ়ময় ৬১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ভালোভাবে দিন পার করে দেয় সিলেট। দিনশেষে দলের স্কোর ৬ উইকেটে ১৮৩ রান। সিলেটের লিড ইতিমধ্যেই দাঁড়িয়েছে ২৭৩ রানে। প্রথম ইনিংসের পর দ্বিতীয় ইনিংসেও ফিফটি হাঁকিয়েছেন গালিব। ক্যারিয়ারের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ারে তৃতীয় ফিফটির পর অপরাজিত আছেন ১৩৭ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় ৭৪ রান করে। এছাড়া সাকিব অপরাজিত আছেন ৬২ বলে ৩ চারের মারে ২৪ রান করে।

ঢাকার হয়ে শুভাগত হোম ও সাইফ হাসান ২টি করে উইকেট শিকার করেছেন।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা