গুনারত্নের এক ওভারেই হারল ভারত, এশিয়া কাপ শ্রীলঙ্কার

স্পোর্টস ডেস্কঃ ইমার্জিং এশিয়া কাপের ফাইনালে রোমাঞ্চকর জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা ইমার্জিং দল। ম্যাচের ৪৭তম ওভারের নাটকে ম্যাচে ফেরে লঙ্কানরা। ঐ ওভারে স্বাগতিক স্পিনার গুনারত্নেই ভারতের শিরোপা স্বপ্নে জল ঢেলে দেন। ডানহাতি এই স্পিনারের ওভারে পরীক্ষিত দুই ব্যাটসম্যানসহ ৩ উইকেট হারায় ভারত। তাতেই ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় ২০১৩ সালের চ্যাম্পিয়নরা।

তবু শেষ উইকেটে ম্যাচের মোড় অল্পের জন্য বাঁক নিতে পারে নি। অতিত শেঠের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জয়ের খুব কাছাকাছি চলে গিয়েছল সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। কিন্তু শেষের নাটকে ম্যাচ জিতে নেয় দ্বীপরাষ্ট্রের দেশ শ্রীলঙ্কা।

কলম্বোতে শনিবারের ফাইনালে শ্রীলঙ্কা ম্যাচ ৩ রানে। এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করে ২৭০ রানের বড় সংগ্রহ পায় শ্রীলঙ্কা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে স্কোর বোর্ডে দেড়শো রান যোগ করার আগে ৬ উইকেট হারিয়ে বসে ভারতের ইমার্জিং দল। তবে সপ্তম উইকেট জুটিতে শামস-যাদবের ব্যাটে জবাব দেয় ভারত। এ দুই ব্যাটসম্যানের কল্যাণে এক পর্যায় জয়ের স্বপ্ন দেখতে থাকে ভারতীয়রা। ম্যাচের শেষ ২৪ বলে ভারতের দরকার ছিল ৩৭ রানের। উইকেটে তখন অধিনায়ক যাদব ব্যক্তিগত ৩১ রানে। কিন্তু গুনারত্নের করা ৪৭তম ওভারের প্রথম বলেই এক্সট্রা কাভারে লঙ্কান অধিনায়ক শাম্মু অ্যাশানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান যাদব। পরের বলে রান তাড়ার চাপে ২ রান নিতে গিয়ে রান আউট হয়ে যান আরেক সেট ব্যাটসম্যান শামস। তখনই কার্যত ম্যাচের হাল ছিটকে যায় ভারতের কাছ থেকে। কিন্তু নাটকের অবসান তখনো হয় নি। অতিত শেঠের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জয়ের খুব কাছ থেকে হারতে হয় ভারতীয়দের। শেষ উইকেটে ১৫ বলে ২৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন শেঠ। শেষ ওভারে ভারতের দরকার ছিল ২০ রানের। সেখান থেকে কামিন্ডু মেন্ডিসের করা ওভারে ২ ছক্কা হাঁকিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তোলেন শেঠ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৩ রান দূরে থাকতে ওভার শেষ হয়ে যায়। শেষ বলে ৬ রানের বিপরীতে ২ রান নিতে পেরেছিলেন শেঠ। তাতেই দ্বিতীয় বারের মত ইমার্জিং এশিয়া কাপের শিরোপা জিতে নেয় শ্রীলঙ্কা।

গত আসরে বাংলাদেশের মাঠ থেকে চ্যাম্পিয়ন ট্রফি নিয়ে ফিরেছল লঙ্কানরা।

এবারের আসরের প্লেয়ার অব দ্যা টুর্নামেন্ট পুরষ্কার জিতেছেন কামিন্ডু মেন্ডিস। ফাইনালের ম্যাচসেরাও এই অলরাউন্ডার।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০