ঘরে বসে থাকতে বললে, বসে থাকবঃ গার্দিওলা

স্পোর্টস ডেস্কঃ করোনা আবারও ভয়াবহ রূপ ধারণ করছে ইউরোপজুড়ে। যার কারণে পুনরায় লকডাউনের দিকে এগোচ্ছে দেশগুলো। লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে ইংল্যান্ডেও। চার সপ্তাহের জন্য দেশটিতে লকডাউন ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। জরুরি পরিসেবা ব্যতীত সবকিছুই এসময় বন্ধ থাকবে।

তবে ফুটবলকে বাদ দিয়ে করা হয়েছে এসব। দর্শকবিহীন মাঠে নিয়মিত চলবে ফুটবল। কিন্তু, খুব বেশি দিন চলবে না সেটি বেশ ভালোভাবেই আন্দাজ করা যাচ্ছে। ফুটবলও হয়তোবা বন্ধ হতে পারে। ফুটবল বন্ধের জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুত রয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ পেপ গার্দিওলা।

গার্দিওলা জানিয়েছেন, যদি খেলতে বলা হয় তবে খেলবেন। যদি ঘরে বসে থাকতে বলা হয় তবে ঘরে বসে থাকবেন। এই নিয়ে সমস্যা নেই। ফুটবলের বেঁচে থাকাকেই আগে ধরে রাখছেন তিনি। সমাজের বাইরে নয় যে ফুটবল, সেটিই সিটি বসের কন্ঠে স্পষ্ট।

গার্দিওলা বলেন, ‘আমাদের যদি খেলতে বলা হয় আমরা খেলব। তবে সমাজের বাইরে গিয়ে আমরা ভিন্ন কিছু হতে চাই না যখন তারা অন্যান্য সব কিছু বন্ধ করে দিচ্ছে। আমি নিরাপদ থাকতে চাই। আমি আমাকে, আমার পরিবার,বন্ধু এবং পুরো ইংল্যান্ডের নিরাপত্তা চাই। তবে কি হবে ভবিষ্যতে তা আমি জানি না।’

এই স্প্যানিশ কোচ আরও বলেন, ‘এটি কোনো মজা নয়, সিরিয়াস বিষয়। আমাদেরকে ঘরে বসে থাকতে বললে ঘরে বসে থাকব। যদি আমাদেরকে বলা হয় এটা করা যাবে না, আমরা করব না। এটা ঠিক না যে অর্ধেক লোক ঘরে বসে থাকবে আর বাকী অর্ধেক যা ইচ্ছা তাই করবে। আমাদেরকে সাবধান থাকতে হবে। এটি অনেক কঠিন। প্রধানমন্ত্রী এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কারণ, পরিস্থিতি দিনের পর দিন খারাপ হচ্ছে। স্পেন, জার্মানি, ফ্রান্সেও হচ্ছে। আমি মনে করি সমাজে যা হচ্ছে ফুটবল বিশ্ব এর বাইরে নয়।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা