জাতীয় দল ছাড়া এইচপিতে কাজ করতে রাজি হননি ডমিঙ্গো!

    নিজস্ব প্রতিবেদক:: বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচের পদেই থাকছেন রাসেল ডমিঙ্গো। নিউজিল্যান্ড সিরিজ শেষে নিজ দেশ সাউথ আফ্রিকায় গেলেও তিনি ঢাকা ফিরবেন, জাতীয় দলের প্রধান কোচের দায়িত্বেই থাকবেন এই প্রোটিয়া কোচ।

    জাতীয় দলের সাম্প্রতিক পারফর্ম, বিশেষ করে টি-২০ বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর ডমিঙ্গোকে নিয়ে বেশ সমালোচনা হচ্ছে। একই সঙ্গে সিনিয়র ক্রিকেটারদের সঙ্গে তার বিবাদের তথ্যও এসেছে গণমাধ্যমে। মাস খানেক পূর্বে এই কোচকে ছাঁটাইয়ের খবরও আসে।

    তবে বিসিবি পরিচালক ও ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জালাল ইউনুস ১৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, রাসেল ডমিঙ্গোই থাকছেন প্রধান কোচের দায়িত্বে। তিনি সাউথ আফ্রিকায় পরিবারকে সময় দিতে গেছেন। সেখান থেকে ঢাকায় ফিরবেন।

    রাসেল ডমিঙ্গো জাতীয় দলের জন্য নয়, হাই পারফরম্যান্স ইউনিট (এইচপি)’র কোচের চাকরির জন্য ইন্টারভিউ দিতে এসেছিলেন বিসিবিতে, কিন্তুু বোর্ড তাকে জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব দিয়ে দেয়। সম্প্রতি টি-২০ বিশ্বকাপের পর গুঞ্জন উঠে, চুক্তির কারণে ডমিঙ্গোকে ছাঁটাই করতে হয়তো পারছে না বোর্ড, তবে জাতীয় দলের বাইরে এই প্রোটিয়া কোচকে ছায়া জাতীয় দল বা এইচপি’র কোচ হিসেবে কাজে লাগানো হবে।

    তবে বিসিবি পরিচালক মোহাম্মদ জালাল ইউনুস জানিয়েছেন, ডমিঙ্গো এইচপিতে ইন্টারভিউ দিতে আসেননি। তিনি জাতীয় দলের হয়েই কাজ করতে এসেছিলেন। বিসিবি তাকে এইচপিতে কাজের প্রস্তাব দিলে তিনি রাজি হননি। তখন তাকে জাতীয় দলের কোচ করা হয়।

    বৃহস্পতিবার ক্রিকেট অপারেশন্স বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘ডমিঙ্গো এইচপিতে কাজ করবে না। সে এরকম কোনো প্রস্তাবও দেয়নি। এই খবরটি সঠিক নয়। তিনি প্রধান কোচ হিসেবে আছেন, এই দায়িত্বই চালিয়ে যাবেন।’

    এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০