ইংল্যান্ডে বড় হওয়া জামাল খেলবেন জার্মানির জার্সিতে

স্পোর্টস ডেস্ক:: দুই দেশের জাতীয় দলের হয়ে খেলার সুযোগ ছিলো তাঁর। তবে শেষ পর্যন্ত জার্মানিকে বেছে নিয়েছেন ফুটবলের তরুণ বিস্ময় বালক, বায়ার্ন মিউনিখের তাঁরকা জামাল মুসিয়ালা। জার্মানিতে জন্ম নেওয়া এই কিশোর ফুটবলার বেড়ে উঠেছেন ইংল্যান্ডে। ইংলিশদের বয়স ভিত্তিক দলেও খেলেছেন। তবে জাতীয় দলের প্রশ্নে তিনি জার্মানিকে বেছে নিয়েছেন।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে শেষ ষোলোর ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে বায়ার্নের হয়ে গোল করেছেন জামাল মুসিয়ালা। ১৭ বছর ৩৬৩ দিন বয়সে গোল করে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে গোল করার একটি রেকর্ডও করেছেন তিনি। তার আগে সর্বকনিষ্ঠ গোল দাতা বোয়ান ক্রকিচের বয়স ছিলো ১৭ বছর ২১৭ দিন।

ইংল্যান্ড যুব দলের হয়ে ২২টি ম্যাচ খেলেছেন জামাল। তার মা একজন জার্মান নাগরিক। জার্মানের স্টুটগার্টে জামালের জন্ম। তার বাবা ব্রিটিশ নাইজেরিয়ান। ইংলিশ ক্লাব চেলসিতে কেটেছে ফুটবলের শুরুর দিনগুলো। মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ শেষে তার কাছে জানতে চাওয়া হয় কোন দেশের হয়ে জাতীয় দলে খেলতে চান?

জবাবে দ্য অ্যাথলেটিককে জামাল বলেছেন, ‘কোন দেশের হয়ে খেলব? এ প্রশ্নের উত্তরের জন্য আমি অনেক ভেবেছি। কোথায় আমার ভবিষ্যত ভালো হবে? কোথায় বেশি সুযোগ পাবো?- এসব ভেবেছি। সবশেষে আমি আমার ভেতরের কথাই শুনেছি, যা আমাকে বারবার বলেছে যে জার্মানির হয়ে খেলাই ঠিক সিদ্ধান্ত হবে, যেখানে আমি জন্ম নিয়েছি। জোয়াকিম লোয়ের সঙ্গে মিউনিখে দেখা করেছিলাম এবং খুব পরিষ্কারভাবে তিনি আমাকে জাতীয় দলে জায়গা পাওয়ার পথ দেখান।’

জাতীয় দল নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া ‘কঠিন’ ছিলো জানিয়ে জামাল বলেন, ‘যাই বলি না কেন, এটি সহজ ছিল না। ইংল্যান্ড আমার জন্য নিজের ঘরের মতো। ইংল্যান্ডের জন্য আমার অনুভূতি প্রকাশের যথেষ্ঠ ভাষা জানা নেই। কারণ সেখানে আমার অনেক স্মৃতি রয়েছে। আমার একটা হৃদয় জার্মানির জন্য, আরেকটা ইংল্যান্ডের জন্য।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০