টাইগার ‘হিরো’র জন্ম দিন আজ

স্পোর্টস ডেস্ক: টাইগার ক্রিকেটের ‘স্পিড স্টার’ তিনি। অনেকের কাছেই ‘হিরো’। সেই তাসকিন আহমদের আজ শুভ জন্ম দিন। জাতীয় দলে অভিষেকের আগে তাঁর বয়স ছিলো ১৯। এখন শেষ হয়ে গেছে ২২। পর্দাপণ করছেন ২৩ বছরে।

১৯তম জন্মদিনের মাত্র ২দিন আগে বাংলাদেশের হয়ে রঙিন পোশাকে আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে পথ চলা শুরু করেন ‘হিরো’ খ্যাত তাসকিন আহমদ। আজ ২২তম জন্মদিনে ৩ বৎসর ২ দিন এর আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে সেই হিরো তাসকিন আহমেদের ছোট্ট ক্যারিয়ারে অর্জন হয়েছে। রঙিন পোশাকে মাতিয়েছেন টাইগার ভক্তদের, বাদ যায়নি সাদা পোশাকও। ক্রিকেটের সব ফরমেটেই এখন লাল-সবুজের ‘গতি তারকা’ তাসকিন।

২য় স্পিডস্টার হিসেবে টাইগার্স দলে খেলা তাসকিন এখন অবধি ১৪টি টি-২০, ২৬টি ওডিআই এবং ৪টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন।

২০১৪ সালের টি২০ বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে পথ চলা শুরু তাসকিনের।

আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে ১ম উইকেট শিকার করেন ঐ ম্যাচেই, গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে বোল্ড করে নিজের উইকেট শিকারের খাতা খুলেন।

ঐ ম্যাচে তাসকিন ৪ ওভার বল করে ২৪ রান খরচায় ১ উইকেট শিকার করে যেখানে ১৩টি বল ডট ছিল।

টি২০-তে অভিষিক্ত হবার ৭৬ দিন পর ওডিআইতেও অভিষেক হয় তাসকিনের। অভিষেক ম্যাচে ৮ ওভারে ৩৩টি ডটসহ ২৮ রান খরচায় ৫ উইকেট শিকার করে বনে যান ১ম বাংলাদেশী হিসেবে অভিষেকে ৫ উইকেট শিকারি।

ওডিআইতে তার ১ম শিকার করা উইকেটটি ছিল রবিন উথাপ্পার। অপেক্ষা ছিল শুধু টেস্ট ম্যাচ খেলার, সেই স্বপ্নও পূর্ণ হলো আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে পা রাখার ২ বৎসর ৯ মাস পর।

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে নিজের অভিষিক্ত ম্যাচেই শিকার করেন কিউই দলপতি উইলিয়ামসন যা তাসুর ১ম টেস্ট উইকেট প্রাপ্তি।

দুর্ভাগ্যজনক একটি পরিসংখ্যান হলো তাসকিনের অভিষিক্ত ম্যাচগুলোতে বাংলাদেশকে দেখতে হয়েছে হারের মুখ।

২০১২ সালে  অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে দলের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি এবং ২০১৫ বিশ্বকাপের দলের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি এই তাসকিন।

২০১৫ বিশ্বকাপের ম্যাশকিন সেলিব্রেশনটি বিশ্বকাপের  অন্যতম অবিস্মরণীয় মুহূর্ত হিসেবে ক্রিকেট ইতিহাসের পাতায় লিপিবদ্ধ।

মূদ্রার ওপিঠও দেখতে হয়েছে তাসকিনকে। ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপ চলাকালীন অবৈধ বোলিং এ্যাকশনের কারণে আন্তর্জাতিক প্রাঙ্গণে বোলিং নিষেধাজ্ঞায় পড়েন তিনি।

দীর্ঘ ৬ মাস পর আবারও বোলিং শুধরে ক্রিকেটে ফিরেন তাসকিন।

১ম বাংলাদেশী হিসেবে ওডিআইতে অভিষিক্ত ম্যাচে ৫ উইকেট শিকার ছাড়াও নিজের ২৪তম ওডিআইতে এসে ৫ম বাংলাদেশী হিসেবে ওডিআইতে হ্যাটট্রিক করার কীর্তি গড়েন, এছাড়াও তাসকিন একটানা ১৪৫ কি.মি/ঘন্টা গতিতে বল করতে সক্ষম একমাত্র টাইগার বোলার।

আজ তাসকিনের জন্মদিনে শতকোটি টাইগার সমর্থকের চাওয়া ভবিষ্যতে সে মাশরাফিকেও ছাড়িয়ে যাবে টাইগার সমর্থকদের ভালোবাসার প্রতিদান হিসেবে আরো অনেক কীর্তি গড়ে প্রিয় দলপতি মাশরাফিকে উৎসর্গ করবে। জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাই তাসকিনকে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০