‘টি-২০ বিশ্বকাপ না হলে আইপিএলও হওয়া উচিত নয়’

স্পোর্টস ডেস্ক:: করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএলের আসর শুরু হয়নি। শঙ্কায় পড়েছে টি-২০ বিশ্বকাপ নিয়েই। চলতি বছরের শেষ দিকে আইসিসি টি-২০ বিশ্বকাপ শুরুর কথা। অনেকেই বলছেন আইপিএলের স্বার্থে বিশ্বকাপকে আটকে দেওয়া হতে পারে।

করোনা পরিস্থিতির উন্নতির পর আগামি নভেম্বর-ডিসেম্বর আইপিএলের আয়োজনের জন্যই টি-২০ বিশ্বকাপ পিছিয়ে দেওয়া হতে পারে বা বাতিল করা হতে পারে। এনিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলছে বেশ। আগামি ১৮ অক্টোবর থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার বসার কথা ছিল ১৬ জাতির চার-ছক্কার ধুন্ধুমার লড়াই। কিন্তু কোভিড-১৯ এসে সেই পথে সৃষ্টি করে দিয়েছে বাঁধা। যার কারণে অস্ট্রেলিয়ায় সময়মতো আসর গড়ানো নিয়ে তৈরি হয়েছিল ধোঁয়াশা। সেই ধোঁয়াশার মাঝেও ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ) এবং আইসিসি আশা দেখাচ্ছিল যথা সময়েই অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ।

তবে সেটি হচ্ছে না। এর পেছনে মূল কারণ অস্ট্রেলিয়া সরকার। দেশটিতে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত বন্ধ থাকবে সব ধরনের আন্তর্জাতিক সীমা। এরপর দেশটিতে গেলে, অন্তত দুই সপ্তাহ থাকতে হবে কোয়ারেন্টিনে। এছাড়াও থাকবে অসংখ্য বিধি-নিষেধ। যার ফলে বিঘ্নিত হবে খেলার সূচি। তাই সব দিক বিবেচনা করে আইসিসি সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে আসর স্থগিত করার।

ভারতের শীর্ষস্থানীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া বলছে টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে আগামি সপ্তাহে সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে বৈঠকে বসবে। এরপরই বিশ্বকাপ স্থগিতের ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত দিবে আইসিসি। তবে বিকল্পও ভেবে রাখা হচ্ছে। এই বিশ্বকাপ পিছিয়ে নিয়ে ২০২১ সালে করা হতে পারে অস্ট্রেলিয়াতেই। আর ২০২১ সালে ভারতে অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে যেতে পারে ২০২২ সালে। অথবা ২০২১ সালে ভারতে সময়মতোই বিশ্বকাপ হতে পারে। আর এবারের আসর অস্ট্রেলিয়াতে অনুষ্ঠিত হতে পারে ২০২২ সালে।

বিসিসিআইর কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, টি-২০ বিশ্বকাপ ওই সময়ে না হলে তারা আইপিএল আয়োজন করবেন। এর বিপক্ষে অনেক সাবেক কিংবদন্তী ক্রিকেটাররা। অস্ট্রেলিয়ার সাবেক কিংবদন্তী অধিনায়ক অ্যালান বোর্ডার এ নিয়ে বেশ সোচ্চার। তার মতে বিশ্বকাপের চেয়ে আইপিএল বড় হতে পারে না। বিশ্বকাপ রেখে আইপিএল হলে, সেখানে খেলোয়াড়দের যেতে না দেওয়ার পক্ষে তিনি।

বিশ্বকাপ রেখে আইপিএল হতে পারে এমন গুঞ্জন ক্ষুব্ধ হয়ে ‘এবিসি রেডিও’র এক অনুষ্ঠানে বোর্ডার বলেন, ‌‘আমি মোটেই খুশি হতে পারছি না। ঘরোয়া টুর্নামেন্টের চেয়ে বৈশ্বিকটাকেই তো প্রাধান্য দেয়া উচিত। আর যদি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হয়, তবে আমার মনে হয় আইপিএলও হওয়া উচিত নয়।’

টাকার জন্যই বিশ্বকাপের বদলে আইপিএল গুরুত্ব পাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন করতে চাই, এটা তো শুধু টাকার জন্যই, তাই না, এটাই তো ব্যাপার? অবশ্যই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের কথাই আগে ভাবা উচিত।’

বিসিসিআই আইপিএল আয়োজন করলেও ক্রিকেটারদের আটকে দেওয়ার পরামর্শ দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, ‘রাস্তাটা বন্ধ হয়ে যাবে। ভারত তো খেলা চালাবেই। এমন সিদ্ধান্ত খুব কাছে। কিন্তু আমি মনে করি, যদি বিশ্ব ক্রিকেটের ৮০ ভাগ আয়ের নিয়ন্ত্রণ আপনাদের হাতে থাকে, তবে আপনাদের ন্যায্যভাবে বলতে হবে-কোনটা হওয়া উচিত। আমি সেটাই বোঝাতে চাইছি।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম./নিপ্র/ডেস্ক/০০