টেস্টের সংস্কৃতিটাই আমাদের দেশে ছিল না কখনো, এখনো নেই- সাকিব

0
26

স্পোর্টস ডেস্কঃ অ্যান্টিগা টেস্টে কোনো লড়াইয়ের সুযোগ না পেয়েই হেরেছে বাংলাদেশ দল। উইন্ডিজের বিপক্ষে পরের টেস্ট সেন্ট লুসিয়াতেও একই চিত্রনাট্য। লাল বলের ক্রিকেটে টানা হারের কারণে সমালোচনা হচ্ছে স্বাভাবিকভাবেই। দীর্ঘ ২২ বছর ধরে টেস্ট খেলছে টাইগাররা। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই ইতিবাচক পারফরম্যান্স উপহার দিতে ব্যর্থ হয়েছে তারা।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে হেরে টেস্ট ক্রিকেটে হারের সেঞ্চুরি করেছে বাংলাদেশ। এই ফরম্যাটে একশর বেশি ম্যাচ খেলা দলগুলো মধ্যে কেবল জিম্বাবুয়ে হারের সেঞ্চুরি পায়নি। বাংলাদেশ নবম দল হিসেবে হারের তিন অঙ্কে পৌঁছেছে। টাইগারদের টানা বাজে পারফর্মেন্সে ভালো করতে সবাই মিলেই টেস্টের সংস্কৃতিতে পরিবর্তন আনতে হবে বলে মনে করেন বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান।

সোমবার ম্যাচ হারের পর সাকিব বলেন, ‘টেস্টের সংস্কৃতিটাই আমাদের দেশে ছিল না কখনো, এখনো নেই। এই জিনিসটা পরিবর্তন করাই আমাদের বড় দায়িত্ব। সবাই মিলে যদি একসঙ্গে পরিকল্পনা করে আগানো যায় তাহলেই হয়তো কিছু সম্ভব হবে। নইলে আসলে খুব বেশি দূর আগানো সম্ভব হবে না। কারণ আমাদের টেস্টের সংস্কৃতিই নেই।’

চলতি বছরের জানুয়ারিতে সবশেষ টেস্ট জয়ের স্বাদ পেয়েছিল বাংলাদেশ। নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পর দেশ-বিদেশ মিলিয়ে জয়হীন টাইগাররা। আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পয়েন্ট টেবিলের তলানীতে এখন অবস্থান তাদের। দলের টানা বাজে ফর্মের কারণে খেলোয়াড়দের এখানে খুব বেশি দোষ দেওয়াটা ঠিক হবে না বলে মনে করেন সাকিব। তিনি বলেন, ‘শুধু খেলোয়াড়দেরই দোষ দিলে হবে না। আমাদের দেশের সিস্টেমটাই কিন্তু এমন। আপনি কবে দেখছেন বাংলাদেশে ৩০ হাজার দর্শক টেস্ট ম্যাচ দেখছে বা ২৫ হাজার দর্শক মাঠে এসেছে টেস্ট দেখতে?’

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here