ডিআরএস নেই বিপিএলে

স্পোর্টস ডেস্ক:: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের অষ্টম আসরে আম্পায়ারদের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানানোর সুযোগ নেই দলগুলোর। এবারের বিপিএলে ডিআরএস রাখছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ডিআরএস ছাড়াই তাই মাঠে লড়াই করতে হবে বিপিএলে অংশ নেওয়া ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে।

বিসিবি এজন্য অবশ্য করোনাভাইরাসকে দায় দিচ্ছে। বিসিবির পরিচালক ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক জানিয়েছেন, করোনার জন্য ডিআরএস রাখা সম্ভব হচ্ছে না। বিষয়টি ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

বিপিএলের পর শুরু হবে আফগানিস্তান সিরিজ। সেই সিরিজেও ডিআরএস নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছেন ইসমাইল হায়দার মল্লিক। দেশের একটি শীর্ষ নিউজ পোর্টালকে এতথ্য জানিয়েছেন বিসিবির এই পরিচালক।

আগামি ২১ জানুয়ারি শুরু হবে বিপিএলের অষ্টম আসর। শেষ হবে ১৮ ফেব্রুয়ারি। ৩৪ ম্যাচের বিপিএল হবে দেশের তিন ভেন্যুতে। ঢাকার শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম ও সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে হবে বিপিএলের ম্যাচ।

করোনাভাইরাসের কারণে ভিন্ন দুই দেশে থাকা ডিআরএস কোম্পানীর কেউ বাং‍লাদেশে আসতে পারবে না জানিয়ে ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেন, ‘কোভিড পরিস্থিতিতে আমরা রাখতে পারছি না ডিআরএস। এখন ওরা (টেকনিশিয়ানরা) কেউ ফ্লাই করতে পারছে না। ওদের দুইটা টিম এখন দুই দেশে আছে, সেখান থেকে এই অবস্থায় বাংলাদেশে আসতে পারবে না।’

আফগানিস্তান সিরিজেও ডিআরএস অনিশ্চিত জানিয়ে তিনি বলেন ‘ডিআরএসের সোর্স সারাবিশ্বে একটাই। ওরাই দেয় সব জায়গায়। ওমিক্রনের কারণে কেউ আসতে চাচ্ছে না। বিপিএলের পর আফগানিস্তান সিরিজ। সেটিতেও রাখতে পারব কিনা, জানি না। সেটাও কথা বলতে হচ্ছে।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০