ঢাকার হ্যাটট্রিক পরাজয়ে খুলনা ফিরলো জয়ে

ঢাকার হ্যাটট্রিক পরাজয়ে খুলনা ফিরলো জয়ে

স্পোর্টস ডেস্ক:: পরপর টানা তিন ম্যাচে হারলো বেক্সিমেকো ঢাকা। ঢাকাকে পরাজয়ের স্বাদ দিয়ে দুই ম্যাচ হারের পর জয়ে ফিরেছে জেমকন খুলনা। মুখোমুখি হওয়ার আগে দু’দলই দু’টি করে ম্যাচ হেরে ছিলো।

ঢাকা-খুলনার মধ্যকার ম্যাচটিতে যে দল জিতবে, তারাই জয়ে ফিরবে, হেরে যাওয়া দল হারের হ্যাটট্রিক করবে এমন সমীকরণ ছিলো ম্যাচের আগে। ম্যাচ শেষে ঢাকা হ্যাটট্রিক হারে নাম লিখিয়েছে। ৩৭ রানের জয়ে স্বস্তি এসেছে খুলনা শিবিরে।

মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে মাহমুদউল্লাহ-সাকিবদের খুলনা ৮ উইকেটে ১৪৬ রান তুলে। জবাবে খেলতে নামা মুশফিকের ঢাকা ৪ বল হাতে থাকতে ১০৯ রানেই গুটিয়ে যায়।

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ঢাকার অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। খুলনা আগে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক রিয়াদ ও ইমরুয়ের কায়েসের ব্যাটে ৯ উইকেটে ১৪৬ রান তুলতে সমর্থ হয়। এদিনও ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন দলটির সেরা তাঁরকা সাকিব আল হাসান। অলরাউন্ডারের ব্যাট থেকে এসেছে ১১ রান। নয় বলের ইনিংসে চার হাঁকিয়েছেন দু’টি।

শুরুটা মোটেও ভাল হয়নি খুলনার। দলীয় ৩০ রানেই হারিয়ে ফেলে তিনটি উইকেট। এরপর রিয়াদ ও ইমরুল জুটি গড়ে দলকে নিয়ে যান চ্যালেঞ্জিং স্কোরে। অধিনায়ক রিয়াদ ৪৭ বলের ইনিংসে তিনটি বাউন্ডারিতে করেন ৪৫ রান। চার চারে ২৭ বলে ২৯ রান করেন ইমরুল। এছাড়াও ১৫ রান করেন ম্যাচ সেরা হওয়া শুভাগত হোম।

ঢাকার হয়ে রুবেল হোসেন ৩টি ও শফিকুল ইসলাম ২টি করে উইকেট লাভ করেন।

১৪৭ রানের টার্গেটে খেলতে নামা ঢাকা চতুর্থ ওভারে দলীয় ১৪ রানেই হারায় তিন উইকেট। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারানো দলটি শেষ পর্যন্ত ১৯.২ ওভারে ১০৯ রানেই অলআউট হয়ে যায়।

অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম ছাড়া ব্যাট হাতে প্রতিরোধ গড়তে পারেননি অন্য কোনো ব্যাটসম্যান। ইনিংস সর্বোচ্চ ৩৭ রান করেন তিনি। ৩৫ বলের ইনিংসে চার মেরেছেন পাঁচটি। ২১ রান এসেছে ইয়াসির আলীর ব্যাট থেকে। দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে পারেননি অন্য কোনো ব্যাটসম্যান।

খুলনার হয়ে শুভাগত হোমন ও শহীদুল ইসলাম ৩টি করে এবং হাসান মাহমুদ ২টি উইকেট লাভ করেন।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/০০