তৃণমূল ফুটবলের নতুন দায়িত্বে জামাল-সাবিনা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বাংলাদেশের ফুটবল উন্নয়নে তৃণমূলে নতুন দায়িত্ব পেয়েছেন জাতীয় দলের দুই অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া ও সাবিনা খাতুন। পুরুষ দলের অধিনায়ক জামাল ও নারী দলের অধিনায়ক সাবিনা’কে তৃণমূলের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি) এই ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়েছে বাফুফেকে। সেই নির্দেশনা মেনেই বাফুফে সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

বাংলাদেশের ফুটবলে জামাল ভূঁইয়ার খ্যাতি নতুন করে বলার কিছু নেই। অসংখ্য তরুণের আইডল এখন তিনি। ফুটবল খেলার পাশাপাশি, তাঁকে এখন ডাকা হয় বার্সেলোনা-রিয়াল মাদ্রিদের মতো দলের বিশ্লেষণ দিতে। নিঃসন্দেহে নিজেকে অনেক উপরে নিয়ে গেছেন জামাল। এছাড়া নারী দলের হয়ে সাবিনাও অনেক বড় তারকা। বিদেশের লিগে নিয়মিত খেলেছেন তিনি। এছাড়া জাতীয় দলের হয়ে অসংখ্য সাফল্য এনে দিয়েছেন। দু’জনই এখন অনুপ্রেরণার নাম। যেটি কাজে লাগাচ্ছে বাফুফে। তৃণমূলের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে দায়িত্ব পেয়ে এখন মাঠ ছাড়াও মাঠের বাইরে কাজ করবেন জামাল-সাবিনা।

প্রাথমিকভাবে জামাল ও সাবিনা কাজ করবেন চারটি জেলায়। সেগুলো হলো ঢাকা, নীলফামারী, ফেনী ও মাদারিপুর। এই চার জেলায় সফর করে তৃণমূলের ফুটবলের অবস্থা সম্পর্কে অবগত হবেন। একই সাথে ফুটবলারদের অনুপ্রেরণা যোগাবেন। এই নিয়ে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাঈম সোহাগ বলেন, ‘জামাল ভূঁইয়া ও সাবিনা খাতুন দুইজনই এ দায়িত্ব পালনে সম্মতি দিয়েছেন। তারা চারটি জেলায় গিয়ে সেখানে তৃণমূল ফুটবল উন্নয়নে সবাইকে কাজে উদ্বুদ্ধ করবেন। তাদের প্রধান কাজ হবে বাফুফের তৃণমূল কার্যক্রমের আওয়াতাধীন কাজে সম্পৃক্ত থাকা।’

এদিকে নতুন দায়িত্ব নিয়ে জামাল ভূঁইয়া বলেন, ‘বাফুফে আমাকে তৃণমূল ফুটবলের শুভেচ্ছাদূত বানিয়েছে। এর জন্য আমি খুবই খুশি। বাফুফেকে ধন্যবাদ এমন একটি সুযোগ তৈরি করে দেওয়ার জন্য। এই দায়িত্ব পেয়ে আমি গর্বিত। চেষ্টা করবো ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে। তৃণমূল পর্যায়ের ফুটবলের উন্নয়নে কাজ করতে মুখিয়ে আছি।’

সাবিনা বলেন, ‘বাফুফেকে ধন্যবাদ জানাই আমাকে তৃণমূল ফুটবলের শুভেচ্ছাদূত মনোনীত করার জন্য। তৃণমূণ ফুটবল যেন আরও এগিয়ে যায়, সেই চেষ্টা থাকবে। দেশের ফুটবলকে সমৃদ্ধ করাই আমার লক্ষ্য।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা