দর্শক শুন্য মাঠে হবে বিপিএল!

    স্পোর্টস ডেস্ক:: বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটের অষ্টম আসরে দর্শকদের মাঠে চাইছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সবশেষ পাকিস্তান সিরিজেও মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে দর্শকরা উপস্থিত ছিলেন।

    বিসিবিও বিপিএলের অষ্টম আসরে শতভাগ না হলেও পঞ্চাশ ভাগ দর্শকের উপস্থিতি রাখার পক্ষে ছিলো। কিন্তুু সোমবার সরকারের পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাসের নতুন ধরণ ওমিক্রন প্রতিরোধে ১১ দফা নির্দেশনা জারি করা হয়েছে।

    নতুন নির্দেশনায় টিকার সনদ ছাড়া কেউ আবাসিক হোটেলে উঠতে পারবেন না, রেস্তোরায় খাওয়া-ধাওয়াও করতে পারবেন না। বাস, ট্রেন, লঞ্চ ও বিমানে অর্ধেক আসন খালি লাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে জনসমাগম মূলক সকল কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আগামি বৃহস্পতিবার থেকে এই নির্দেশনা কার্যকর হবে।

    দেশের তিন ভেন্যু মিরপুরের হোব অব ক্রিকেট, সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও চট্টগ্রামের এম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বিপিএলের ম্যাচগুলো অনুষ্টিত হবে। ২১ জানুয়ারি শুরু হওয়া বিপিএল শেষ হবে ১৮ ফেব্রুয়ারি।

    এমন অবস্থায় বিপিএলে দর্শক উপস্থিতি নিয়েও ভাবছে বিসিবি। সরকারের নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলে দর্শক শুন্য মাঠেই বিপিএল আয়োজন করবে ক্রিকেট বোর্ড। সরকারি নির্দেশনা উপেক্ষা করার সুযোগ নেই। তাই মাঠে বসে খেলা উপভোগ করতে পারবেন না দর্শকেরা।

    বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলও বিষয়টি নিয়ে ভাবছে। বিপিএলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক সাংবাদিকেদর জানিয়েছেন, সরকারি নিষেধাজ্ঞা থাকলে মাঠে প্রবেশ করতে পারবেন না দর্শকরা। তাদেরকে ঘরে বসে টিভিতেই খেলা দেখতে হবে।

    ইসমাইল হায়দার মল্লিক সোমবার একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের ইচ্ছে ছিলো টিকা নেওয়া দর্শকদের মাঠে রাখতে, ডাবল ডোজ টিকা যারা নিয়েছেন, তারা যেনো মাঠে বসে বিপিএল দেখতে পারেন। সরকার যেহেতু নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে, এ অবস্থায় দর্শক উপস্থিতিতে খেলা চালানোর সুযোগ নেই। সরকারি নির্দেশনা মেনেই মাঠে গড়াবে বিপিএল।’

    এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০