দাম কম, তাই অসুস্থ হয়ে পড়বেন স্মিথ!

স্পোর্টস ডেস্ক:: ইন্ডিয়াম প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেট অনেক ‘অখ্যাত’ ক্রিকেটারকেও এনে দেয় খ্যাতি। অল্প দিনেই কোটিপতি হয়ে উঠেন অনেকে। আবার অনেক তাঁরকা ক্রিকেটারকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলে দেয়। এই যেমন স্টিভেন স্মিথ।

আইপিএলের আগের আসরেই খেলেছেন ১২ কোটি রুপিতে। অজি ‘কিংবদন্তী’ প্রতিষ্টিত ক্রিকেটার এবং পারফর্মারও। কিন্তুু এবারের আইপিএল নিলামে তাঁর দাম উঠেছে মাত্র ২ কোটি ২০ লাখ রুপিতে। এক আসরের ব্যবধানেই দাম কমে গেছে ১০ কোটি রুপির মতো।

অনেকেই তাই ধারণা করছেন আইপিএলের এই আসরে হয়তো খেলবেন না স্মিথ। মাত্র ২ কোটি রুপির জন্য আড়াই মাসের মতো সময় পরিবার, পরিজন ছেড়ে ভারতে তিনি অবস্থান করবেন না। ২০১৮ সালে রাজস্থানে তিনি খেলেছেন ১২টি কোটি রুপিতে। এবার দিল্লী ক্যাপিটালস তাঁকে দলে নিয়েছে মাত্র ২ কোটি ২০ লাখ রুপিতে। অজিদের ২০১৫ বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক তাই শঙ্কা প্রকাশ করছেন, আইপিএলের জন্য ভারতের বিমানে উঠার আগে অসুস্থ হয়ে পড়বেন স্মিথ। কারণ এতো অল্প টাকায় দীর্ঘ দিনের একটি টুর্ণামেন্ট নিশ্চয়ই তিনি খেলতে চাইবেন না।

অস্ট্রেলিয়ার বিগ স্পোর্টস ব্রেকফাস্ট পডকাস্টে ক্লার্কের বিশ্লেষণ, ‘স্টিভ স্মিথের কথা বলছেন…ও বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান না হলেও সেরার চেয়ে খুব একটা পিছিয়েও নেই। বিরাট কোহলি এক নম্বর, তবে স্মিদি-ও (স্মিথ) সেরা তিনেই থাকবে। জানি, টি-টোয়েন্টিতে ওর পারফরম্যান্স ও যতটা ভালো করতে চেয়েছিল, ততটা ভালো হয়নি। গত বছরের আইপিএলেও ও ভালো খেলতে পারেনি। ও যে দামে বিক্রি হয়েছে, সেটা দেখে আমি বেশ বিস্মিত হয়েছি। ৪ লাখ (অস্ট্রেলিয়ান) ডলারেরও নিচে বিক্রি হয়েছে ও, যদিও এই অর্থটা এখনো অনেক।’

ক্লার্ক বলেন, ‘ও গত মৌসুমে যা পেত, পাশাপাশি রাজস্থানে ওর ভূমিকা ছিল অধিনায়কের—এসব আপনি যখন হিসাব করবেন, সে ক্ষেত্রে ভারতের প্লেনে ওঠার দিনে ওর ছোটখাটো হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটের কথা শুনলেও অবাক হবেন না যেন!’

স্মিথ আইপিএলে না যাওয়ার শঙ্কা জানিয়ে ক্লার্ক বলেন ‘আট সপ্তাহের একটা টুর্নামেন্টে যেতে হবে ওকে, টুর্নামেন্টের আগে কোয়ারেন্টিনেও থাকতে হবে। সব মিলিয়ে ধরুন ১১ সপ্তাহ। আমার মনে হয় না ৩ লাখ ৮০ হাজার (অস্ট্রেলিয়ান) ডলারের জন্য ও পরিবার আর সঙ্গিনীর থেকে ১১ সপ্তাহ দূরে থাকতে চাইবে।’

আসলেই স্মিথ কি সিদ্ধান্ত নেন সেটি দেখার অপেক্ষায় আছেন জানিয়ে অজিদের বিশ্বকাপ জয়ী সাবেক অধিনায়ক আরো বলেন, ‘ও হ্যামস্ট্রিংয়ে টান বা এ জাতীয় চোট দেখিয়ে না যায় কি না, সেটা দেখার বেশ আগ্রহ আমার। আবার উল্টোটাও হতে পারে। ও হয়তো মনে মনে ভাববে, ‘‘আমি অবশ্যই যাব। খেলব। (ভারতের মাটিতে সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া) টি-টোয়েন্টিতে বিশ্বকাপেও ভালো করব, যাতে আগামী আইপিএল নিলামে আরও বেশি দামে আমাকে কিনে নিতে বাধ্য হয়। আমি সেখানে যাব। টাকার অঙ্ক নিয়ে আমি মাথা ঘামাই না, (টি-টোয়েন্টি স্মিথের সামর্থ্য নিয়ে) মানুষকে ভুল প্রমাণ করব।’’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/০০