দিল্লির বিপক্ষে বড় জয়ে কোয়ালিফায়ার নিশ্চিত করল মুম্বাই

ছবিঃ বিসিসিআই।

স্পোর্টস ডেস্কঃ জয়ের ধারা অব্যাহত রেখে চলেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। ব্যাটে-বলে আধিপত্য বিস্তার করে দিল্লিকে ৯ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ দুইয়ে থাকা নিশ্চিত করল বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। যার ফলে কোয়ালিফায়ার খেলাও নিশ্চিত হয়ে গেল। ব্যাট হাতে ঝড়ো ইনিংস খেলে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হয়েছেন মুম্বাইয়ের ইশান কিষাণ।

দুবাইয়ে দিল্লির দেওয়া ১১১ রানের ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরু থেকেই ব্যাট হাতে আক্রমণাত্বক মুম্বাইয়ের দুই বাঁহাতি ওপেনার ডি কক ও ইশান কিষাণ। দু’জনের ৬৮ রানের জুটি ভাঙে ডি ককের বিদায়ে। প্রোটিয়াদের এই বাঁহাতি উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান ভাগ্য বিড়ম্বনায় স্বদেশী অ্যানরিচ নর্টজের বলে বোল্ড আউট হয়ে ফিরেন। শুরুতে আক্রমণাত্বক খেলা ডি কক পরবর্তীতে ধীর গতি হয়ে পড়ে ২৮ বলে ২৬ রান করেন।

এরপর আর কোনো উইকেট হারাতে হয়নি মুম্বাইকে। টপ অর্ডারে ব্যাট করতে নামা সূর্যকুমার যাদবকে সাথে করে ৩৪ বল হাতে রেখেই ৯ উইকেটের বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন ইশান। ৪৭ বলে ৮ বাউন্ডারি ও ৩ ছক্কার মারে ৭২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন এই বাঁহাতি তরুণ। এছাড়া ১১ বলে ১২ করেন সূর্যকুমার।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দিল্লির ইনিংসে শুরুতেই ট্রেন্ট বোলের পেসে ফিরে যান দুই ওপেনার শিখর ধাওয়ান (০) ও পৃথ্বী শ (১০)। মুম্বাইয়ের বোলাররা নিজেদের চাপ ধরে রাখে দিল্লির ব্যাটসম্যানদের উপর। ধীর গতির একটি জুটি (৪২ বলে ৩৫) গড়ে দলকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টায় ছিলেন অধিনায়ক শ্রেয়াস আইয়ার ও ঋষভ পন্ত।

শ্রেয়াস ফিরে যান দলের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ২৫ (২৯) করে। বেশি সময় টিকতে পারেননি পন্তও ২১ (২৪)। ব্যর্থতার পরিচয় দেন স্টোয়নিস-হেটম্যায়াররাও। যার ফলে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১১০ রানের বেশি করতে পারেনি দিল্লি।

মুম্বাইয়ের হয়ে যশপ্রীত বুমরাহ ও ট্রেন্ট বোল্ট সর্বোচ্চ ৩টি করে উইকেট শিকার করেন। রাহুল চাহার ও নাথান কুল্টার নিল ১টি করে উইকেট লাভ করে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা