দুঃস্বপ্নের বিশ্বকাপে বাংলাদেশঃ হারে শুরু হারে শেষ!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ হার, হার, হার, হার এবং হার; টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ফল এটিই। সুপার টুয়েলেভে টানা পাঁচ ম্যাচ হেরে চরম হতাশার বিশ্বকাপ মিশন শেষ হলো বাংলাদেশের।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হয়েছিল হার দিয়ে। প্রথম রাউন্ডের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। শেষেও থাকলো হার। পার্থক্য এতটুকু এবারের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়া। শুরু আর শেষের বিন্দু একই জায়গায়। মাঝে কেবল দুটি জয়।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারে সুপার টুয়েলভ শুরু করা বাংলাদেশ আর জিততে পারল না কোনো ম্যাচ। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে অসহায় আত্মসমর্পণের পর উইন্ডিজের সাথে লড়াকু হার। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার লজ্জার হার দেখতে হয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দলের। তবে সবচেয়ে বড় লজ্জাটি অস্ট্রেলিয়ার কাছেই পেলো টাইগাররা। গত আগস্টে মিরপুরে যেই অজিদের বিপক্ষে সিরিজ ছিল ৪-১ ব্যবধানে, সে দলের বিপক্ষে ৭৩ রানে গুঁটিয়ে গিয়ে লজ্জার হারের স্বাদ পেতে হলো।

হার দিয়ে বিশ্বকাপ বাছাই পর্বও শুরু হয়েছিল বাংলাদেশের। স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হারের পর অবশ্য ওমান-পাপুয়া নিউ গিনিকে হারিয়ে সুপার টুয়েলভে জায়গা করে নেয় রাসেল ডোমিঙ্গোর শিষ্যরা। সুপার টুয়েলভে শ্রীলঙ্কার কাছে হারের পর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারে নি তারা। শেষ পর্যন্ত হারই হয়ে থাকলো অমোঘ নিয়তি।

বৃহস্পতিবার সুপার টুয়েলভে নিজেদের শেষ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। টাইগারদের ৭৩ রানের জবাবে মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৬.২ ওভারেই জয়ের নাগাল পায় অজিরা। অথচ ঘরের মাঠে তাদের বিপক্ষে ৪-১ এ সিরিজ জিতেছিল টাইগাররা।

৭৪ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমানকে বলে বলে উড়িয়ে উড়িয়ে মারেন দুই অজি ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও ডেভিড ওয়ার্নার। ২০ বলে ৪০ রান করে আউট হন ফিঞ্চ। ওয়ার্নার ১৪ বলে ব্যক্তিগত ১৮ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন শরিফুল ইসলামের বলে। ৫ বলে মিচেল মার্শ করেন ১৬ রান।

হারের ষোল কলা পূর্ণ হলো বাংলাদেশের। সেমি-ফাইনালের স্বপ্ন নিয়ে দেশ ছাড়া দলটিই বিশ্বকাপ মিশন শেষ করলো সবচেয়ে বাজেভাবে। এবারের আসরে বাংলাদেশ একমাত্র দল, যারা মূল পর্বে কোনো জয় পায়নি। স্টকল্যান্ডও জয় পায়নি, তবে তাদের আরও দুটি ম্যাচ বাকি আছে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/১১০