দুই রকমভাবে দিন গুনে চলেছেন সাকিব

ফাইল ছবি।

স্পোর্টস ডেস্কঃ জুয়াড়ির প্রস্তাব গোপন করে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ রয়েছেন সাকিব আল হাসান। ইন্ট্যারন্যশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি) সাকিবকে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দেয়। যার মধ্যে এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ফলে বাংলাদেশের পোস্টার বয় এখন আছেন এক বছরের নিষেধাজ্ঞায়। সেই নিষেধাজ্ঞার ইতিমধ্যে পার হয়ে গেছে প্রায় ৭ মাস।

নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার মাস পাঁচেক আর বাকি। এর পরই মাঠে ফিরতে পারবেন দেশের এই তারকা। তবে সাকিবের মাঠে ফেরার মধ্যে বড় বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়ে আছে বিশ্বব্যপী তাণ্ডব ছড়ানো মহামারী করোনা ভাইরাস। করোনা ভাইরাসের কারণে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে যাওয়া অনেকটাই নিশ্চিত প্রায়। বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে বাংলাদেশেরই লাভ হবে। সাকিব খেলতে পারবেন পুরো বিশ্বকাপ।

তবে করোনা ভাইরাসের কল্যাণেই হোক বা অন্য কোনো কারণে, মাঠে ফিরতে উদগ্রীব হয়ে আছেন এই অলরাউন্ডার। যার জন্য এখন দুইভাবে দিন গুনে চলেছেন তিনি। একটি করোনা ভাইরাস বিলীন হয়ে যাওয়া এবং অপরটি নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়ে যাওয়ার। আগামি ২৯ অক্টোবর শেষ হবে সাকিবের নিষেধাজ্ঞার সময়সীমা।

দেশের শীর্ষ স্থানীয় এক গণমাধ্যমকে সাকিব বলেন, ‘আমি আসলে দুইভাবে দিন গুনছি। প্রথমত, করোনা পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে আর কবে আমার নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে। আমি কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। যদিও এখন কোথাও কোন ক্রিকেট হচ্ছে না। আমি জানি, যদি আগামীকাল ক্রিকেট শুরুও হয়, তাও আমি খেলতে পারব না।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা