দেড় বছর পর বল হাতে দুর্দান্ত মুস্তাফিজ, ক্যারিবিয়ানদের চেপে ধরেছে বাংলাদেশ

0
43

স্পোর্টস ডেস্ক:: টেস্ট খেলছেন না অনেক দিন থেকেই। দীর্ঘ প্রায় দেড় বছর পর লাল বল হাতে নেমে দুর্দান্ত হয়ে উঠলেন মুস্তাফিজুর রহমান। এবাদতের পর মুস্তাফিজের আঘাতে প্রস্তুুতি ম্যাচে স্বাগতিক ক্যারিবিয়ানদের চেপে ধরেছে বাংলাদেশ। তিন দিনের প্রস্তুুতি ম্যাচটির শেষ দিনে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করছে উইন্ডিজ বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ।

দ্বিতীয় দিনই উইন্ডিজরা ব্যাট করতে নেমে চার উইকেট হারিয়ে ছিলো। পেসার এবাদত একাই শিকার করেছিলেন ৩ উইকেট, রাজা নিয়ে ছিলেন এক উইকেট। আজ শেষ দিনে বল হাতে দুর্দান্ত হয়ে উঠা মুস্তাফিজ এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিকার করেছেন ৩টি উইকেট। প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ৭ উইকেটে ৩১০ রানের জবাবে ব্যাট করছে উইন্ডিজ প্রেসিডেন্ট একাদশ। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তাদের সংগ্রহ ৯৬.২ ওভারে ৮ উইকেটে ২৯৪ রান।

এর আগে সকালে চার উইকেটে ২০১ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে স্বাগতিকরা। ব্যাট করতে নামা উইন্ডিজদের দ্বিতীয় দিনেই চেপে ধরেছ ছিলেন পেসার এবাদত হোসেন। তরুণ পেসার রাজার ব্রেকথ্রু এনে দেওয়ার পরপরই জ্বলে উঠেন এবাদত।

স্বাগতিক দুই উদ্বোধনী জুটিই কিছুটা ভোগান বাংলাদেশকে। দু’জনে মিলে গড়েন ১০৯ রানের জুটি। তাগেনারাইন চন্দরপল ও জেরেমি সলোজানোর উদ্বোধনী জুটি ভাঙেন রাজা। ১১৭ বলে ৫৯ রান করা চন্দরপলের স্ট্যাম্প ভেঙে দেন তিনি। রাজার পরপরই আগুন ঝরানো বোলিং করেন এবাদত।

একে একে ফিরিয়ে দেন ক্যারিবিয়ান তিন ব্যাটারকে। এবাদত দ্রুতই তুলে তেন ফেরান ইমলাচ, অ্যালিক অ্যাথেনেজ ও রস্টন চেজকে। ১২ রানের ব্যবধানে তিন উইকেট শিকার করে ম্যাচের মোড় গুড়িয়ে দেন তিনি। তবে এক প্রান্ত আগলে রেখে ব্যাট করছেন জেরেমি সলোজানো। আগের দিন ৮৩ রান করে অপরাজিত থাকা সলোজানো ৯২ রানে সাজঘরে ফেরত পাঠান মুস্তাফিজ। ২১ রানে অপরাজিত থাকা কারিয়াহকে ৫৬ রানে সাজঘরেও পাঠান কাটার মাস্টার।

বাংলাদেশের হয়ে এবাদত ও মুস্তাফিজ ৩টি করে, রাজা ও খালেদ ১টি করে উইকেট শিকার করেন।

এর আগে দ্বিতীয় দিন সকালে বাংলাদেশ ইনিংস ডিক্লেয়ার করে ৭ উইকেটে ৩১০ রান তুলে। প্রথম দিন শুক্রবার ৬ উইকেট হারিয়ে ২৭৬ রান তুলতে সক্ষম হয় বাংলাদেশ। সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ১৪০ রান করে অপরাজিত ছিলেন তামিম ইকবাল।

তবে দ্বিতীয় দিনে সকালে এসে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ দল। তামিম ইকবাল পূরণ করেন দেড়শ। শেষ পর্যন্ত ১৬২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন তিনি। তার ২৮৭ বলের ইনিংসটি সাজানো ছিল ২১ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায়।

এর বাইরে বলার মতো নাজমুল হোসেন শান্ত ৫৪ রান করেছেন। নুরুল হাসান সোহান করেছেন ৩৫ রান। তবে ব্যর্থ হয়েছেন লিটন দাস, মুমিনুল হক, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান মিরাজরা।

ক্যারিবিয়ানদের হয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন জেরেমি লুইস।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here