দ্বিতীয় টেস্টে বিশ্রামে মুমিনুল!

স্পোর্টস ডেস্ক:: নেতৃত্ব ছেড়েছেন, এবার বিশ্রামেও যাচ্ছেন মুমিনুল হক। দ্বিতীয় টেস্টে তাঁকে বিশ্রামে দেওয়া হতে পারে। টানা ব্যর্থ হওয়া সাবেক এই অধিনায়কের একটা ‘বিরতি’ নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। নতুন টেস্ট অধিনায়ক সাকিবও জানিয়ে ছিলেন, তিনি চাইলে বিশ্রাম নিতে পারেন।

টানা নয় ইনিংসের একটিতেও এক অঙ্কের কোটা পেরুতে পারেননি মুমিনুল হক। সবশেষ ১৭ ইনিংসেও খেলতে পারেননি বড় একটি ইনিংস। টেস্টে তার ফর্মহীনতা মানেই দলের জন্য বড় ক্ষতি। দীর্ঘ দিন থেকে ফর্মহীন তিনি। রানে ফিরবেন এই আশাতে টানা খেলে যাচ্ছিলেন।

তবে কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। নেতৃত্ব ছেড়ে নির্ভার হয়েও ব্যাট হাসাতে পারেননি মুমিনুল হক। অ্যান্টিগা টেস্টে ব্যর্থ হওয়ার পরই তার বিরতি নিয়ে বেশ জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়। কোচ সালাউদ্দিন থেকে শুরু করে অনেক বিশ্লেষকই তার বিশ্রামের প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন।

০,২,৬, ৫, ২, ৯, ০,০, ৪- সংখ্যাগুলো হলো মুমিনুলের সবশেষ নয় ইনিংস। অ্যান্টিগা টেস্টের প্রথম ইনিংসে রানের খাতাই খুলতে পারেননি। দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৪ রান করেই ফিরেন সাজঘরে। সেন্ট লুসিয়ায় দ্বিতীয় টেস্টের আগে তাই তার বিশ্রামের জোর আলোচনা।

মুমিনুল চাইলেই দ্বিতীয় টেস্টে তাকে বিশ্রাম দেবে টিম ম্যানেজম্যান্ট। ফর্মহীন মুমিনুলও ভাবছেন বিষয়টি নিয়ে। তবে তিনি একমাত্র টেস্ট ছাড়া আর কোনো ফরম্যাটে সুযোগ পান। বিশ্রাম বা বাদ পড়ার মতো সিদ্ধান্ত নেওয়াটাও তার জন্য বেশ ‘কঠিন’ হবে। টিম ম্যানেজম্যান্ট তাঁকে দ্বিতীয় টেস্টে তাই বিশ্রামে দিতে পারে। তবে এটা এক প্রকার নিশ্চিতই, মুমিনুল বা শান্ত থেকে যে কোনো একজন থাকবেন না সেন্ট লুসিয়া টেস্টের একাদশে। সেই জায়গায় সুযোগ পেতে পারেন এনামুল হক বিজয়ও।

মুমিনুল হকের বিশ্রাম নিয়ে টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেন, ‘এটা আমার পক্ষে বলা মুশকিল। যেটা হচ্ছে, ওর সঙ্গে সব সময় কথা হয়। আবারো কথা হবে। ওযদি মনে করে ওর ব্রেক দরকার আছে, সেটা হতে পারে। সেন্ট লুসিয়াতে অনুশীলন করব। ওই দিন চিন্তা করব, আমাদের দলের জন্য কোনটা ভালো হতে পারে।’

ফর্মহীন ব্যাটারদের স্পষ্ট বার্তা দিয়েছেন তিনি। জানিয়েছেন, রান করতে হবে। রান বের করার উপায় তাদেরই খুঁজতে হবে। সাকিব বলেন, ‘টেকনিক্যালিও অনেক সমস্যা আছে। টেকনিক্যালি সাউন্ড এমন খেলোয়াড় খুব বেশি আছে আমাদের, তা মনে হয় না। আমাদের দলের যারা আছে সবারই টেকনিক্যাল সমস্যা আছে। কিন্তুু তাদের উপায় খুঁজে বের করতে হবে কীভাবে রান করতে হবে, ক্রিকেট থাকতে হবে।’

টেস্ট অধিনায়কের এমন বক্তব্য সহজেই বলে দিচ্ছে, তার বার্তা স্পষ্ট। দলে থাকতে হলে পারফর্ম করতে হবে। ফর্মহীনদের পক্ষে নন তিনি। প্রত্যেককেই নিজ দায়িত্ব পালন করতে হবে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০