নাজমুল হাসান জানালেন- মুমিনুলের অধিনায়কত্বে সন্তুষ্ট বিসিবি

নিজস্ব প্রতিবেদক:: অধিনায়ক মুমিনুল হককে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার শেষ নেই। মাঠে বাজে ক্যাপ্টেন্সি, রিভিউ নেওয়া, না নেওয়ার সিদ্ধান্তহীনতার সঙ্গে বাজে পারফর্ম। সব মিলিয়ে প্রচন্ড খারাপ সময় যাচ্ছে টেস্ট অধিনায়কের।

স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের কোনো ইনিংসেই রানের দেখা পাননি তেমন। রানে নেই দীর্ঘ দিন থেকেও। অধিনায়ক মুমিনুল যেনো হারিয়ে যেতে বসেছেন। নেতৃত্ব পাওয়ার আগে ব্যাটে দুর্দান্ত ছিলেন তিনি। মুমিনুল মানেই ফিফটি, সেঞ্চুরির দেখা মিলতো নিয়মিত।

ঘরের মাঠে লঙ্কানদের বিপক্ষে বাজে হার, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে পয়েন্ট খুঁয়ানোর সঙ্গে দুই ইনিংসেই চরম ব্যর্থ তিনি। এক অঙ্কের কোটাই পেরুতে পারেননি। তবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সাগরপাড়ের এই ক্রিকেটারের নেতৃত্বে অসন্তুুুষ্ট নয়।

ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে মুমিনুল ব্যাট হাতে ৯ বলে ৯ রান করেছেন দুই চারে। দল যখন দ্রুত উইকেট হারিয়ে ধুঁকছে তিনি তখন ফিরেন সাজঘরে। দ্বিতীয় ইনিংসেও একই হাল। চরম বিপদের সময়ে দলকে আগলে রাখতে পারেননি। ডাক মেরে ফিরেন সাজঘরে।

তবে তাতে বিসিবি অসন্তুুষ্ট নয়। মুমিনুলকের নেতৃত্বে সন্তুুষ্ট বোর্ড। কিন্তুু তার ফর্মহীনতা ভাবাচ্ছে ক্রিকেট বোর্ডকে। মুমিনুল দ্রুত রানে ফিরবেন, সেই প্রত্যাশা বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের। জানিয়েছেন, তিনি কথা বলেছেন অধিনায়কের সঙ্গে। আগামি দু’এক দিনের মধ্যে আবারো বসবেন, খোলামেলা কথা বলবেন।

বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান অধিনায়ক মুমিনুলকে নিয়ে বলেন, ‘ওর ক্যাপ্টেন্সি নিয়ে আমরা বোরিং না। সমস্যা হচ্ছে ব্যাটিং নিয়ে। সে মানষিক ভাবে পেশারে আছে। আশা করি সে খুব দ্রুত রানে ফিরবে।’ অধিনায়কত্ব নিয়ে তিনি বলেন, ‘দেখি ও কি মনে করে, আমাদের চিন্তার বিষয় হচ্ছে ওর ব্যাটিং। ওর কাছেও নিশ্চয়ই খারাপ লাগছে।’

প্রথম ইনিংসে টপঅর্ডারের চরম বাজে ব্যাটিংয়ের পরও বাংলাদেশ দল লিটন-মুশফিকের সেঞ্চুরিতে ৩৬৫ রান তুলেছিলো। কিন্তুু প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কাকে বোলাররা আটকাতে পারেননি। নিষ্প্রাণ বোলিংয়ে পিটিয়ে লঙ্কানরা উল্টো ১৪১ রান লিড নেয় নিজেদের প্রথম ইনিংসে।

পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা বাংলাদেশ দল আবারো প্রথম ইনিংসের মতো ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে। প্রথম ইনিংসে যেখানে ২৪ রানে ৫ উইকেট ছিলো, দ্বিতীয় ইনিংসে সেখানে ২৪ রানে ৪ উইকেট। প্রথম ইনিংসে লিটন-মুফশিক টানলেও দ্বিতীয় ইনিংসে প্রতিরোধের চেষ্টা করেছিলেন লিটন-সাকিব।

তবে লিটন-মুশফিক খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। দু’জনেই ব্যক্তিগত ফিফটির পরপরই ফিরেছেন সাজঘরে। বাংলাদেশ তাই গুটিয়ে যায় ১৬৯ রানে। ২৯ রানের সহজ লক্ষ্য পেয়ে লঙ্কানরা তা টপকে গেছে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/০০