নিজেদের ক্লাবের তৃতীয় সদস্যকে স্বাগত জানালেন যুবরাজ

স্পোর্টস ডেস্ক:: এক ওভারের ছয় বলে ছয় ছক্কার ক্লাব একেবারেই ছোট। এর আগে ছিলেন মাত্র দু’জন। বৃহস্পতিবার তাতে যোগ হয়েছেন আরেকজন। লঙ্কানদের বিপক্ষে অবিশ্বাস্য ছয় বলে ছয় ছক্কার ‘রেকর্ড’ করেছেন ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার কাইরন পোলার্ড।

নিজ ক্লাবের আরেক সঙ্গীকে তাই টুইট পোস্টে স্বাগত জানিয়েছেন যুবরাজ সিং। এর আগে টি-২০ ক্রিকেটের এক ওভারে ছয় ছক্কার একমাত্র রেকর্ডটি ছিলো ভারতীয় এই ক্রিকেটারের। ওয়ানডেতে ছয় ছক্কার কীর্তি আছে হার্শেল গিবসের।

টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে এখনো কোনো ব্যাটসম্যান ছয় বলে ছয় ছক্কা হাঁকাতে পারেননি। ছয় ছক্কা ক্লাবের তৃতীয় সদস্যকে নিয়ে করা টুইটে যুবরাজ সিং লিখেন, ‘‘কাইরন পোলার্ড, আমাদের ক্লাবে তোমাকে স্বাগত। ছয় ছক্কা। অসাধারণ।’’

ছয় ছক্কা হজমের আগে হ্যাটট্রিক করেন লঙ্কান বোলার আকিলা ধনাঞ্জয়া। একই ম্যাচ হ্যাটট্রিক ও এক ওভারে ছয় ছক্কা হাঁকানোর কীর্তি দেখে ক্রিকেট বিশ্ব। একই সাথে বোলার হিসেবও এমন অভিজ্ঞতার সাক্ষী হয়ে থাকলেন আকিলা ধনাঞ্জয়া। এক ওভার আগে যখন হ্যাটট্রিক অর্জন করেন, এর পরের ওভারেই ছয় ছক্কা হজম করেন এই স্পিনার। ধনাঞ্জয়াকে একই ম্যাচে এমন অম্ল-মধুর স্বাদ পাওয়ার বড় কৃতিত্ব কাইরন পোলার্ডের। কেননা এই তারকা ব্যাটসম্যানই ছয় ছক্কা হাঁকিয়েছেন।

উইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৩১ রানের পুঁজি পায় লঙ্কানরা। সর্বোচ্চ ৩৪ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় ৩৯ রান করেন অভিষিক্ত টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান পাথুম নিশাঙ্কা। এছাড়া ওপেনার নিরোশান ডিকেওয়ালার ব্যাট থেকে আসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রান।

উইন্ডিজের হয়ে ছয় বোলারের সবাই উইকেটের দেখা পেয়েছেন। এর মধ্য থেকে ওভেড ম্যাকয় ২৫ রানে ২ উইকেট নিয়ে দলের সেরা বোলার হয়েছেন।

১৩১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা পায় উইন্ডিজ মাত্র ২০ বলে ৫২ রানের উদ্বোধনী জুটি আসে লেন্ডন সিমন্স ও এভিন লুইসের ব্যাট থেকে। ১০ বলে ৩ ছক্কা ও ২ চারে ২৮ রান করে লুইস ফিরলে ভাঙে এই জুটি। ম্যাচের তৃতীয় ওভারে ধনাঞ্জয়া বল করতে এসেই লুইসকে ফেরান। কিন্তু, পরের দুই বলেই টপ অর্ডারে ব্যাট করতে নাম ক্রিস গেইল ও নিকোলাস পুরানকে গোল্ডেন ডাকে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন এই ডানহাতি স্পিনার। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ক্রিকেটে ১৪তম হ্যাটট্রিক করে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেন তিনি।

তবে নিজের পরের ওভারের তিক্ত স্বাদ পেতে হয়ে ধনাঞ্জয়াকে। ক্যারিবিয়ান অধিনায়ক কাইরন পোলার্ডের হাতে ছয় ছক্কা হজম করেন। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে যুবরাজ সিংয়ের পর দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ছয় ছক্কা হাঁকানোর রেকর্ড গড়েন পোলার্ড। আর সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট মিলিয়ে তৃতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে এমন কীর্তি গড়েন। কেননা হার্শেল গিবস ওয়ানডে ক্রিকেটে ছয় ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন।

ছয় ছক্কা হজম করেই মূহুর্তেই নায়ক থেকে খলনায়ক বনে ম্যাচ খুইয়ে দিয়ে আসেন ধনাঞ্জয়া। তবে নিজের তিক্ততা যেন আরেকটু সমৃদ্ধ করেছেন তিনি। কেননা এর পরের ওভারের প্রথম বলে আরও একটি ছক্কা হজম করেছেন। টানা ৭ বলে ছক্কা হজম আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বিরল ঘটনা। তবে মূহুর্তেই পাল্টে যায় চিত্র। ফের ক্যারিবিয়ানদের অনুকূলে চলে যায় ম্যাচ। শেষদিকে ১১ বলে ৬ ছক্কায় প্রায় ৩৪৬ স্ট্রাইক রেটে ৩৮ রান করে পোলার্ড ফিরলেও, জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে কোনো ভুল করেনি স্বাগতিকরা। জেসন হোল্ডারের অপরাজিত ২৯ রানের ক্যামিওতে ৪১ বল হাতে রেখেই ৪ উইকেটের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে উইন্ডিজ।

শ্রীলঙ্কার হয়ে ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা ডি সিলভা ৪ ওভার বল করে মাত্র ১২ রান খরচায় ৩ উইকেট শিকার করেছেন। অপরদিকে হ্যাটট্রিকে তিন উইকেট শিকার করলেও, ছয় ছক্কা হজম করে ৬২ রান খরচ ফেলেন আকিলা ধনাঞ্জয়া।

ম্যাচ সেরা হয়েছেন বিধ্বংসী ইনিংস খেলা পোলার্ড। এই জয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে ১-০’তে এগিয়ে গেল উইন্ডিজ। আগামী ৬ মার্চ শনিবার সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০