নেইমার-মেসিদের পিএসজিকে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন ম্যানচেস্টার সিটি

স্পোর্টস ডেস্ক:: তারকায় ঠাসা পিএসজিই পারলো না। এমবাপ্পে, নেইমার, মেসিদের পিএসজিকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা হলো ম্যানেচস্টার সিটি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফিরতি লেগের ম্যাচে পিএসজিকে ২-১ গোলে হারিয়েছে সিটি। দারুণ এক ম্যাচ দেখলেন ফুটবল ভক্তরা। তারকাদের পিএসজিকে ম্যাচে কোনো সুযোগই দিচ্ছিলো না সিটি।

একের পর এক আক্রমণে পিএসজিকে অকেটা কোণঠাসা করে রাখা সিটি। প্রথমার্ধে দারুণ খেললেও গোল আদায় করতে পারেনি সিটি। তবে দ্বিতীয়ার্ধেই পিএসজির শিবিরে হতাশা ছড়িয়ে দেয় দলটি। পিছিয়ে পড়ার পর দারুণ ভাবে ঘুরে দাঁড়ায়। ২-১ গোলে হারিয়ে দেয় নেইমারদের।

ইউরো শ্রেষ্ঠত্বের গত আসরে সেমিফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে হেরেছিলো পিএসজি। এবার প্রথম লেগের দেখায় জিতলেও দ্বিতীয় লেগের দেখায় আবারো হারলো দলটি। এই জয়ের ফলে ম্যানচেস্টার সিটি গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ ষেলো নিশ্চিত করলো। রাতের আরেক ম্যাচে ব্রুজকে ৫-০ গোলে হারিয়েছে লাইপজিগ। তাতে করে পিএসজিরও শেষ ষেলো নিশ্চিত হয়েছে।

রাত ২টায় শুরু হওয়া ম্যাচটিতে সিটি দারুণ খেলতে থাকে। নেইমার-মেসি আর এমবাপ্পেদের আক্রমণ ঠেকিয়ে দলটি উল্টো একের পর এক আক্রমণ করতে থাকে। তবে প্রথমার্ধে দু’দলই গোলের সুযোগ নষ্ট করে। ফলে কারোই এগিয়ে যাওয়া হয়নি। গো‍ল শূন্য সমতায় ম্যাচ রেখে বিরতিতে যায় দুই দল।

বিরতির পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই পিছিয়ে পড়ে সিটি। এমবাপ্পের গোলে ম্যাচের ৫০তম মিনিটে লিড নেয় পিএসজি। পিছিয়ে পড়ার পরই সিটি জেগে উঠে। একের পর এক আক্রমণ চালাতে থাকে প্রতিপক্ষের রক্ষণে। সাফল্যের দেখাও পেয়ে যায় দলটি। সিটির আক্রমণে ভেঙে পড়ে পিএসজির রক্ষণভাগ।

ম্যাচের ৬৩তম মিনিটে সমতায় ফেরে সিটি। কাইল ওয়াকারের বাড়ানো বল পিএসজির জালে পাঠিয়ে দেন রাহিম স্টার্লিং। ১-১ গোলে সমতায় থাকা ম্যাচটিকে দ্রুতই সিটিকে এগিয়ে দেন জেসুস। ম্যাচের ৭৬তম মিনিটে পিএসজি শিবিরকে হতাশায় ডুবান তিনি। বের্নার্দো সিলভার পাস থেকে পাওয়া বল জালে পাঠিয়ে সিটির জয় সূচক গোলটি করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০