পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে করা মামলা খারিজ

স্পোর্টস ডেস্ক:: ঢাকার আদালতে পাকিস্তান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বাবর আজমসহ ২১ জনের বিরুদ্ধে করা নালিশি মামলাটি খারিজ করে দিয়েছেন আদালতের বিচারক। বৃহস্পতিবার বিকেলে চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিষ্ট্রেট আবু ছিদ্দিকের আদালত মামলাটি খারিজের আদেশ দেন।

এর আগে দুপরে ঢাকার আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়। মিরপুরের হোম অব ক্রিকেটে পাকিস্তানী পতাকা উড়ানোর জন্য এই মামলা দায়ের হয়েছিলো। মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ সিএমএম আদালতে এই নালিশি মামলা দায়ের করে।

তিন ম্যাচের টি-২০ ও দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে অবস্থান করছে পাকিস্তান দল। এরই মধ্যে শেষ হয়েছে টি-২০ সিরিজ। সফরকারী দলটি ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছে। সিরিজ শুরুর আগে মিরপুরের একাডেমি মাঠে অনুশীলনের সময় পাকিস্তান দলের সদস্যরা দেশটির জাতীয় পতাকা উড়ান।

ঢাকায় পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা উড়ানাের পর থেকেই আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়। যদিও পাকিস্তান দাবি করেছে, তারা তাদের অনুশীলনে দলকে উজ্জীবিত করতেই জাতীয় পতাকা উড়িয়েছে। সেটা কেবল ঢাকায় নয়, নিউজিল্যান্ড বা বিশ্বকাপ, সবখানেই দেশটি জাতীয় পতাকা উড়িয়ে অনুশীলন করে আসছে।

ঢাকার আদালতে মামলা করার করার আগে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে। সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কপর্যের পাদদেশে মানববন্ধনও করা হয়। এসময় বক্তারা অভিযোগ করেন, ঢাকায় পাকিস্তানী পতাকা উড়ানোর পরও বিসিবি নিরবতা পালন করছে। কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। এ ঘটনায় তারা বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের পদত্যাগ দাবি করেন।

মামলায় আসামি করা হয়েছে পাকিস্তান দলের অধিনায়ক মোহাম্মদ বাবর আজম, কোচ সাকাইলান মুস্তাকসহ ২১জনকে। অন্যান্য আসামীরা হলেন ম্যানেজার মনসুর রানা, শাদাব খান, ফখর জামান, আসি আলী, হায়দার আলী, হারিস রউফ, হাসান আলী, ইফতেখার আহমেদ, ইমাদ ওয়াসিম, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ নওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, সরফরাজ আহমদ, শাহিন শাহ আফ্রিদী, শোয়েব মালিক, শাহনেওয়াজ দাহানি, ওসমান কাদি ও শহীদ আসলাম।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০