পিএসজির জয়ে গোল করলেন নেইমার-ইকার্দি

স্পোর্টস ডেস্কঃ ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানে পিএসজির মাঠে অভিষেক হলো লিওলেন মেসির। রোববার রাতে অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে অভিষেকে পুরো ম্যাচ খেলতে পারেন নি এই আর্জেন্টাইন। স্বদেশী কোচ মাওরিসিও পচেত্তিনো তাকে দ্বিতীয়ার্ধের শেষ দিকে তুলে নেন।

ঘরের মাঠ পার্ক দে প্রিন্সেসে পয়েন্ট হারানোর শঙ্কায় থাকা পিএসজির ত্রাতা নেইমার ও মাউরো ইকার্দি। লিওঁর বিপক্ষে প্রথমে গোল হজম করা পিএসজিকে সমতায় ফেরান নেইমার। ম্যাচের একেবারে শেষ মূহুর্তে গোল করে দলকে জয় (২-১) এনে দেন আর্জেন্টাইন ইকার্দি।

ম্যাচের প্রথমার্ধে গোল আসে নি এই ম্যাচে। তবে সুযোগ ছিল গোলের। প্রথমার্ধে ডি বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া মেসির ফ্রিকিক গোল বারে লেগে ফিরে আসে। দ্বিতীয়ার্ধের ৫৪তম মিনিটে এগিয়ে যায় লিওঁ। বাঁদিক থেকে সতীর্থের পাস গোলে পরিণত করেন লুকাস পাকুয়েতা। পিএসজির অরক্ষিত রক্ষণ তাকে রুখতে পারে নি। বাঁ পায়ের নেওয়া পাকুয়েতার শট গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি দোনারোমা ঝাঁপিয়ে পড়লেও ঠেকাতে পারেন নি।

৬৬তম মিনিটে সমতায় ফেরে পিএসজি। পেনাল্টি থেকে গোল করেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমার। লিওঁর ডি বক্সে ফাউলের শিকার হয়েছিলেন নেইমার। রেফারির পেনাল্টি বাঁশি বাজার পর ঠাণ্ডা মাথায় গোল করে দলকে ম্যাচে ফেরান তিনি।

আনহেল ডি মারিয়ার বদলি নামা ইকার্দি ম্যাচের অন্তিম মূহুর্তে গোল করে জয় পাইয়ে দেন পচেত্তিনোর দলকে। বদলি নামা এই আর্জেন্টাইন হেড দিয়ে গোল করে স্কোর লাইন ২-১ করেন। বাঁদিক থেকে সতীর্থের উড়ে আসা বলে মাথা ছুঁইয়ে গোল করেন তিনি।

এর আগে ম্যাচের ৭৬তম মিনিটে মেসিকে তুলে আশরাফ হাকিমিকে নামান কোচ। আর ৮২ মিনিটের সময় ডি বদলি নেমেছিলেন গোলদাতা ইকার্দি।

এ জয়ের সুবাদে লিগে শতভাগ ম্যাচে জয় তুলে নিলো নেইমার-মেসিরা। লিগ ওয়ানে এটা ছিল ষষ্ঠ ম্যাচে পিএসজির ষষ্ঠ জয়। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে যথারীতি পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আছে তারা।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০