প্রয়োজনে বাতিল হবে চীনা কোম্পানির সাথে আইপিএলের চুক্তি

স্পোর্টস ডেস্কঃ সপ্তাহে লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চীন ও ভারতের সেনা সদস্যের সংঘর্ষের ঘটনায় বিক্ষোভে উত্তাল ভারত। চীনা সৈন্যদের হামলায় ভারতের ২০ জন সেনা সদস্য নিহত হন। এরপর থেকেই ভারতে চলছে চীন বিরোধী বিক্ষোভ। চীনা পণ্য বর্জন করার ডাক দিয়েছেন দেশটির সাধারণ মানুষ। যেখানে সুর মিলিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটার হরভজন সিং’ও।

তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) অবশ্য চীনা কোম্পানি ভিভো’র পক্ষেই। আইপিএলের অর্থায়নের জন্য চীনকেই পাশে চেয়েছিলেন তারা। বিশ্বের সবচেয়ে জমজমাট ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টটির টাইটেল স্পন্সরের জন্য চীনা মোবাইল কোম্পানি ভিভো’কে রেখে দেওয়ার পক্ষেই কথা বলেছিলেন বিসিসিআই কোষাধক্ষ্য অরুণ ধুমাল।

তবে এবার জানিয়েছেন ভিন্ন কথা। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে ধুমাল বলেন, ‘যদিও চাইনিজ স্পন্সরশিপ ভারতের অর্থনীতিতে সাহায্য করে। তবে বোর্ড সবসময় দেশের কথা আগে চিন্তা করবে। পরিস্থিতি যদি আরও অবনতির দিকে যায় তাহলে, স্পন্সরশিপের ব্যাপারে কঠিন সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

উল্লেখ্য, আগামি ২০২২ সাল পর্যন্ত আইপিএলের সঙ্গে চুক্তি আছে ভিভো’র। প্রতি বছর আইপিএল আয়োজনের জন্য বিসিসিআইকে ৪৪০ কোটি রুপি দেয় এই চীনা মোবাইল কোম্পানি। পাঁচ বছরের চুক্তিতে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের আয়ের সর্বমোট অঙ্কটা দাঁড়ায় ২২০০ কোটি রুপি। তাই বিসিসিআই এত সহজে এটি হাতছাড়া করতে চাইছে না।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা