ফিফার নিয়মে অপেক্ষা বাড়লো বাংলাদেশের কিংসলের

নিজস্ব প্রতিবেদক:: স্বপ্ন দেখতেন বহু দিন থেকেই। শুরুটা করেছিলেন ২০১৬ সালে। প্রায় চার বছরের বেশি সময় থেকে অপেক্ষায় ছিলেন। এবারো সেই অপেক্ষা বড়ালো। বাংলাদেশ জাতীয় দলে খেলার জন্য ২০১৬ সালেই আবেদন করেন তিনি। দীর্ঘ প্রক্রিয়া শেষে চলতি বছর বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পান নাইজেরিয়ান ফুটবলার এলিটা কিংসলে।

বাংলাদেশের নাগরিকত্ব পাওয়ার পর জাতীয় পরিচয়পত্র ও পাসপোর্টও তৈরি করেন এলিটা কিংসলে। এরপরই বাংলাদেশ ফুটবল দলে ডাক মিলে তার। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের দলেও ছিলেন। অন্য সব ফুটবলারের সঙ্গে ক্যাম্পে যোগ দিয়ে অনুশীলনও করেন।

কিন্তুু ফিফার অনুমতি না মেলায় শেষ মুহুর্তে সাফের দল থেকে বাদ পড়ে যান এলিটা কিংসলে। বাংলাদেশ দল তাঁকে ঢাকায় রেখেই মঙ্গলবার মালদ্বীপের বিমানে উঠেছে। বাংলাদেশ দলে খেলার স্বপ্ন দেখছেন দীর্ঘ দিন থেকে। সেই স্বপ্ন পূরণও হতে যাচ্ছিলো। তবে ফিফার অনুমতি না থাকায় সেই অপেক্ষা বাড়লো আরো কিছু দিন।

ঘরোয়া ফুটবলের নিয়মিত মুখ, স্ট্রাইকার এলিটা কিংসলেকে বাংলাদেশের বেশ প্রয়োজন ছিলো। এমনিতেই স্ট্রাইকার নিয়ে সঙ্কটে বাংলাদেশ দল। প্রতিপক্ষের মাঠে একাধিক গোল হজম করলেও তেমন গোলের দেখা পান জামালরা। কিন্তুু আপাতত আর এলিটাকে পাওয়া হচ্ছে না।

তবে ফিফা থেকে কেন ছাড়পত্র পাওয়া যায়নি, এনিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে কোনো মন্তব্য করেনি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন বাফুফে। ফুটবল সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ফেডারেশন আরেকটু পেশাদারিত্বের সঙ্গে কিংসলের বিষয়টা দেখতে পারতো। এতো কিছুর পরও কেন তাঁকে দলে নেওয়ার অনুমতি দেয়নি ফিফা, সেটাই এখন আলোচনায়।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০