বাংলাদেশে থাকতে চাইছেন না বিদেশী কোচ

স্পোর্টস ডেস্ক:: বিদেশী কোচদের অনেকটা অনীহা থাকা বাংলাদেশ থাকতে। এবার সেই তালিকায় নাম লেখাচ্ছেন বাংলাদেশে থাকা আরেকজন বিদেশী কোচ। তিনিও চলে যেতে চাইছেন বাংলাদেশ থেকে। বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশন (বিওএ)’র সাঁতার কোচ পার্ক তে গুন চলে যেতে চাইছেন।

বাংলাদেশের সাঁতারুদের এই দক্ষিণ কোরিয়ান কোচ বিওএ’র সঙ্গে আর চুক্তি নবায়ন করতে চাচ্ছেন। বিওএ বিদেশী এই কোচকে রাখার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না। অলিম্পিক এসোসিয়েশন থেকে মাসে ৫ হাজার ডলার বেতন দেওয়া হতো এই কোচকে।

এই সাঁতারু কোচ বাংলাদেশকে সাফল্য এনে দিচ্ছেন। তার কোচিংয়ে স্বর্ণ জিতেছেন বাংলাদেশের সাঁতারুরা। তবুও তিনি  সহযোগিতা পাচ্ছেন না। ভালো কাজে উল্টো তিনি বাধাগ্রস্ত হচ্ছেন অভিযোগ তার।

তবে বিওএ এখন আর্থিক সংকটে ভুগছে। কোচের বেতন দেওয়া নিয়ে তাই সংশয় আছে। তবুও কোচকে রাখতে চায় এসোসিয়েশন। কিন্তুু দক্ষিণ কোরিয়ান এই কোচ আর থাকতে চাইছেন না।

পার্ক সাংবাদিকদের বলেন, বলেন, ‘সাঁতার উন্নয়নে ফেডারেশনের অনীহা ও অসহযোগিতার কারণে বাংলাদেশে আর কাজ করতে চাইছি না।এশিয়ান গেমসে নিজ দেশের হয়ে কাজ করতে ইচ্ছুক। আমি সত্যি মর্মাহত। ফেডারেশনের কর্তারা সাঁতার উন্নয়নে আগ্রহী নয়। রাজনৈতিক চিন্তা-ভাবনা নিয়ে তারা ব্যস্ত। আমি অনেক চেষ্টা করেছি কিন্তু পারিনি। তারা তাদের স্বার্থের বাইরে কিছু করতে রাজি নয়।’

দক্ষিণ কোরিয়ান কোচ ছুটিতে নিজ দেশে থাকতেই সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন বাংলাদেশ থেকে চলে যাবেন। এই দেশে কাজ করতে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন জানিয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘বাংলাদেশের সবকিছু জানি। এটাই মনে হয় আমার সমস্যা। ছুটিতে থাকতে অনেক ভেবেছি। নিজ দেশে থাকলে পরিবারের কাছে থাকতে পারবো। সবার সহযোগিতা পাবো। এখানে তো ভালো কিছু করতে হলে বাধা আসে। এই যে আমি পাঁচ দিন ধরে ঢাকায় এসেছি। ফেডারেশনের কেউ আমার খোঁজ খবর নেয়নি। এভাবে চললে বাংলাদেশের সাঁতারে উন্নতি হবে কী করে।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০