বাংলাদেশ সফরে আসছে ইংল্যান্ড, আইপিএলে অনিশ্চিত আর্চাররা!

স্পোর্টস ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের কারণে মাঝ পথেই স্থগিত হয়েছে আইপিএলের এবারের আসর। টুর্নামেন্টের বাকি রয়েছে আরও ৩১ ম্যাচ। স্থগিত ঘোষণার পরপর ভাররতীয় মিডিয়ার দাবি ছিল, চলতি বছরই আইপিএলের বাকি ম্যাচগুলো আয়োজন করতে যাচ্ছে বিসিসিআই।

তবে সপ্তাহ না পেরুতেই বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি জানিয়েছেন, এ বছর ভারতের মাটিতে আর আইপিএল হবে না। এমনকি ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কা বা অন্য কোনো দেশেও স্থগিত হওয়া আসর শুরু হওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে বিসিসিআই সভাপতি এই বছর আয়োজন না করার কথা বললেও শেষ পর্যন্ত সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে মাঠে গড়াতে পারে কাড়িকাড়ি টাকার এই টুর্নামেন্টের বাকি অংশ। আর যদি সেটিই হয় তাহলে বিপাকে পড়বে আইপিএল ফ্যাঞ্চাইজিগুলো। কারণ তখন ইংল্যান্ড দলের খেলা থাকবে আইসিসির সূচিতে। আর ঠাসা সূচির কারণে নিশ্চয় আইসিসির টেস্ট খেলুড়ে দলগুলো ছাড়বে না তাদের ক্রিকেটারদের। এতে বিপাকে পড়ার শঙ্কা থাকছে আইপিএলের।

অর্থাৎ, ইংল্যান্ডের সিরিজের সঙ্গে আইপিএল সূচির যদি সংঘাত বাঁধে, তবে ব্রিটিশ ক্রিকেটারদের কোনওভাবেই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়র লিগের জন্য ছাড়া হবে না।  এ বিষয়ে ইংল্যান্ড দলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যাসলে জাইলস বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জানুয়ারিতে চূড়ান্ত হয়েছে। ততক্ষণে সকলকে পুরো আইপিএল খেলার অনুমতি দিয়ে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এখন থেকে আমরা এফটিপি মেনেই চলব। তাছাড়া আইপিএল কখন, কোথাও হবে তাও আমরা কেউ জানি না। ভারতের বিরুদ্ধে দেশের মাটিতে টেস্ট সিরিজের পর সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরে ইংল্যান্ড পাকিস্তান ও বাংলাদেশ সফরে যাবে। তারপর টি ২০ বিশ্বকাপ রয়েছে। সর্বোপরি অ্যাশেজ রয়েছে। জুলাইয়ে হান্ড্রেডেও বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার খেলবেন। ফলে ঠাসা ক্রীড়াসূচির কারণে ক্রিকেটারদের ওয়ার্কলোডের ব্যাপারেও আমাদের খেয়াল রাখতে হবে।’

প্রসঙ্গত, ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজ শেষ হলেই ১৬ সেপ্টেম্বর ইংল্যান্ড বাংলাদেশ সফরে আসবে। তারপর ১৬ বছর পর পাকিস্তানে যাওয়ার কথা আছে তাদের।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০