বাংলা টাইগার্সে সুযোগ পাওয়া সাত ক্রিকেটারকে ছাড়পত্র দেবে না বিসিবি

স্পোর্টস ডেস্ক:: দুবাইয়ে আগামি নভেম্বরে অনুষ্টিত হতে যাওয়া টি-১০ লিগে বাংলাদেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি বাংলা টাইগার্স বেশ বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের। এই টুর্ণামেন্টের অন্য কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি বাংলাদেশী ক্রিকেটারদের দলে নেয়নি। কিন্তুু বাংলা টাইগার্স যাদেরকে দলে নিয়েছে, তাদেরকে খেলার অনুমতি দেবে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

আগামি ১৪ নভেম্বর শুরু হবে টি-১০ লিগ। একই দিন জাতীয় লিগের শেষ রাউন্ডের খেলা শুরু হবে দেশে। যার কারণে বাংলা টাইগার্সে নিশ্চিত হওয়া সাত বাংলাদেশীর অনাপত্তিপত্র (এনওসি) দেবে না বিসিবি।

বিসিবির কর্মকর্তারা বলছেন, টি-১০ লিগের চেয়ে তাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় লিগ। এনসিলের দলে থাকা ক্রিকেটারদের অনাপত্তিপত্র দেওয়া হবে না। দলটিতে সুযোগ পাওয়া বাংলাদেশীরা হলেন, আবু হায়দার রনি, এনামুল হক বিজয়, ফরহাদ রেজা, জুনায়েদ সিদ্দিকী, ইয়াসির আলী রাব্বি, মেহেদী হাসান ও আরাফাত সানী। এর মধ্যে আরাফাত সানী ভারতের বিপক্ষে টি-২০ স্কোয়াডেও আছেন।

বাংলাদেশী এসব ক্রিকেটারদের না পেলে বাংলা টাইগার্স তাদের বিকল্পও বাংলাদেশ থেকে নেওয়ার চেষ্টা করবে। সেক্ষেত্রেও ব্যর্থ হলে দলটি বিদেশীদের পথে এগুবে। তবে তার আগে বিসিবির সঙ্গে সমঝোতা করার চেষ্টা করবেন বাংলা টাইগার্সের মালিকরা।

নিলাম থেকে বিদেশীদের মধ্যে বাংলা টাইগার্স থিসারা পেরেরা, আন্দ্রে ফ্লেচার, কলিন ইনগ্রাম, রাইলি রুশো, রবি ফ্রাইলিঙ্ক, কায়েস আহমদ, জেমস ফ্রঙ্কনার ও চিরাগ সুরীদের দলে ভিড়িয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী একটি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জাতীয় লিগ আমাদের কাছে বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে। এটির সঙ্গে সাংঘর্ষিক হলে দেওয়া হবে না (অনাপত্তিপত্র)। জাতীয় লিগ উপেক্ষা করে এনওসি দেওয়া হবে আমাদের নীতিবহির্ভূত।’

বাংলা টাইগার্সের হেড কোচ বাংলাদেশের সাবেক ক্রিকেটার আফতাব আহমদ বিষয়টি নিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘হ্যাঁ, শুনলাম দেবে না বলছে। জানি না আমাদের ম্যানেজমেন্ট (ফ্র্যাঞ্চাইজি) কী করবে। তারা যদি বিষয়টা সামলে নিতে পারে তাহলে তো হলোই। এখনো আমরা এটি নিয়ে বসিনি। কাল হয়তো মিটিং হবে। এর পর সিদ্ধান্ত নেব।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০