বাধার কারণে স্থগিত হলো ক্রিকেটে ‘নতুন’ ফরম্যাটের তিন দলের এক ম্যাচ

স্পোর্টস ডেস্ক:: তিনটি দল ৩৬ ওভারে খেলবে এক ম্যাচ। আগামি ২৭ জুন এই নতুন ফরম্যাটের অদ্ভুত ম্যাচটি আয়োজন করেছিলো সাউথ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড। তবে আপাতত নতুন ফরম্যাটের এই টুর্ণামেন্টটি স্থগিত হয়ে গেছে। সরকারি অনুমোদনের কারণে আটকে গেছেন আয়োজকেরা।  কারণ সরকারি অনুমোদন মেলেনি এখনো। অদ্ভুত ম্যাচটির অনুমোদন মিলেনি দেশটির সরকারের পক্ষ থেকে। এমনকি আইসিসিও এখন পর্যন্ত অনুমোদন দেয়নি সাউথ আফ্রিকার এই টুর্ণামেন্টটিকে। যার কারণে আয়োজকেরা আরো যাচাই-বাছাই এবং বিবেচনার জন্য টুর্ণামেন্ট স্থগিত করেছেন।

সাউথ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে বৈঠকে বসে টুর্ণামেন্টটি স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। পরবর্তীতে নতুন করে আরো যাচাই-বাছাই শেষে টুর্ণামেন্টটি শুরুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। প্রিটোরিয়ার সুপার স্পোর্ট পার্কে ৩৬ ওভারের ম্যাচে মুখোমুখি হওয়ার কথা ছিলো তিন দলের।

ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা জানিয়েছে, ‘মিটিংয়ের পর আমরা পরিষ্কার হয়েছি যে প্রস্তুতির জন্য আরও কাজ করতে হবে। সেইসঙ্গে (সরকারি) অনুমোদনেরও দরকার আছে।’

তিন দল খেলবে টুর্ণামেন্টিতে, খেলা হবে ৩৬ ওভারের। এমন ‘নতুন’ ফরম্যাটের টুর্ণামেন্ট দিয়ে ক্রিকেট ফেরানোর উদ্যোগ নিয়ে ছিলো সাউথ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ)। প্রোটিয়া বোর্ডের এই টুর্ণামেন্টে ফাফ ডু প্লেসিস, এবিডি ভিলিয়ার্স, কুইন্টন ডি কক, কাগিসো রাবাদসহ দেশটির জাতীয় দলের সব ক্রিকেটারই খেলবেন। তিন দল মিলে খেলবে ৩৬ ওভার। প্রতি দলে থাকবেন ৮ জন করে ক্রিকেটার। দলগুলোর পারফরম্যান্সের উপর নির্ভর করে ঘোষণা করা হবে জয়ী দল। স্বর্ণ, রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক পাবে দলগুলো।

সিএসএ করোনাকে জয় করে ক্রিকেট মাঠে ফেরাতে স্বল্প পরিসরে ম্যাচ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাতে করেই ‘নতুন’ ফরম্যাটের এই ক্রিকেটের দেখা মিলছে। একই ম্যাচে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে তিনটি দল। সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে ‘সলিডারিটি কাপ’ নামে এমন টুর্ণামেন্ট আয়োজন করতে যাচ্ছে প্রোটিয়া বোর্ড।

সলিডারিটি কাপ থেকে প্রাপ্য অর্থ দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত মানুষের কল্যাণে ব্যবহার করা হবে। অর্থাৎ চ্যারিটি মূলক এই টুর্ণামেন্ট হবে। স্বাস্থ্য বিধি মেনে দর্শক শূন্য স্টেডিয়ামে হবে ম্যাচ। সিএসএ জানিয়েছে,। ৩৬ ওভারের ম্যাচকে দুই ভাগে ভাগ করে খেলা হবে। প্রতি দল একে অন্যের বিপক্ষে ১২ ওভার করে ব্যাট করার সুযোগ পাবে। একজন বোলার ৩ ওভারের বেশি বল করতে পারবেন না।

ম্যাচটির দ্বিতীয়ার্ধে আগে ব্যাট করে যে দলের রান বেশি তারাই। প্রতি দলের শেষ ব্যাটসম্যান থেকে যাবেন অপরাজিত। অর্থাৎ সপ্তম উইকেটের পর খেলা শেষ হবে। অষ্টম ব্যাটসম্যান পরবর্তী দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করতে পারবেন। এরপর রানের সংখ্যার ভিত্তিতে দলগুলোকে স্বর্ণ, রৌপ্য এবং ব্রোঞ্জ পদক প্রদান করা হবে।

দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেট বোর্ড বুধবার অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এই নতুন ফরম্যাটের টুর্ণামেন্টের কথা জানিয়ে দলগুলোও প্রকাশ করেছে। দলে আছেন জাতীয় দল থেকে অবসর নেওয়া এবিডি ভিলিয়ার্স। একটি দলের নেতৃত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে তার হাতে। যে তিনজন অধিনায়ক নেতৃত্ব দেবেনে টুর্ণামেন্টে তারা হলেন- কাগিসো রাবাদা, কুইন্টন ডি কক এবং এবি ডি ভিলিয়ার্স।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সাবেক অধিনায়ক ও এই নতুন টুর্ণামেন্টের এবি’স ঈগলসের অধিনায়ক এবিডি ভিলিয়ার্স টুর্নামেন্ট নিয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ‘এখান থেকে কী প্রত্যাশা করব জানি না, এজন্যই এটা আরও আকর্ষণীয়। তরুণ অবস্থায়, আমি সবসময় শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে টিকে থাকার স্বপ্ন দেখতাম এবং অন্য দলের হয়ে ম্যাচটা জিততে চাইতাম।’ তবে আপাতত স্থগিত হলো টুর্ণামেন্টটি।

‘সলিডারিটি কাপ’ অংশ নেওয়া দলগুলো হলো;

এবি’স ঈগলস: এবি ডি ভিলিয়ার্স (অধিনায়ক), কাইল ভেরেয়ান্নে, মার্করাম, লুঙ্গি এনগিডি, আন্দিলে ফেহলোকাইয়ো, সিসান্দা মাগালা, র‍্যাসি ভ্যান ডার ডুসান ও জুনিয়র দালা।

কেজি’স কিংফিশারস: কাগিসো রাবাদা (অধিনায়ক), ফাফ ডু প্লেসিস, তাবরেইজ শামসি, হেনরিক, রিজা হেনড্রিকস, জান্নেমান মালান, ক্লাসেন, গ্লেন্টন স্টারমান ও ক্রিস মরিস।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০