বিপিএলে উজ্জ্বল সিলেট, অনুজ্জ্বল সিলেট

    নিজস্ব প্রতিবেদক:: শেষ হলো বঙ্গবন্ধু বিপিএলের আসর। এই আসরে চরম লজ্জা পেয়েছেন সিলেটের ক্রিকেট প্রেমীরা। সিলেটের নামের ফ্র্যাঞ্চাইজি নিয়ে হয়েছে তেলেসমাতি। ঢাকার একটি কোম্পানী স্পন্সর নিয়ে ছিলো সিলেটের। বিসিবির অধীনে সপ্তম আসর হওয়ায় তাতে অংশ গ্রহণ ছিলো না কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের।

    বিসিবির অধীনে থাকা সিলেট থান্ডার তাই চরম লজ্জা দিয়েছে ক্রিকেট প্রেমীদের। নিম্নমানের দল গঠনের পাশাপাশি ফিক্সিং কেলেঙ্কারিরও অভিযোগ উঠেছে দলটির একজন বিদেশী ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে। মাঠের পারফর্মে অনুজ্জ্বল ছিলো সিলেট থান্ডার।

    তবে বিপরীত চিত্রও আছে। বিপিএলে মাঠের পারফর্মে আবার দুর্দান্ত সিলেটের ক্রিকেটাররা। তরুণ জাকের আলী অনীক বিপিএলের ইতিহাসে রেকর্ড গড়েছেন। চ্যাম্পিয়ন দল রাজশাহী কিংসের গুরুত্বপূর্ণ অংশ ছিলেন সিলেটের ক্রিকেটাররা। সাবেক ক্রিকেটার রাজিন সালেহ সামলিয়েছেন চ্যাম্পিয়নদের কোচের দায়িত্ব। মাঠে লড়াই করেছেন অলক কাপালী, আবু জায়েদ রাহীরা।

    এই বিপিএলে সিলেট তাই এক দিকে অনুজ্জ্বল ছিলো নিজ শহরের নামে ফ্র্যাঞ্চাইজির কারণে। আরেক দিকে তাই ‘আলোকিত’ ক্রিকেটারদের কল্যাণে। ফাইনালের মহারণে ব্যাটিংয়ের সুযোগ মিলেনি অলক কাপালীর। তবে আগের ম্যাচগুলোতের দলের আস্থার প্রতিদান কিছুটা হলেও দিয়েছেন। পেসার আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী খুলনার বিপক্ষে বল হাতে নিয়েছেন এক উইকেট।

    ফাইনালের মঞ্চে রাজশাহী রয়্যালস ২১ রানে হারিয়েছে খুলনা টাইগার্সকে। ৪ উইকেটে রাজশাহীর ১৭০ রানের জবাবে খুলনা থেমেছে ৮ উইকেটে ১৪৯ রানে। চ্যাম্পিয়ন ট্রফি নিয়ে ফটোসেশনও করেছেন পদ্মপাড়ের দলে থাকা সিলেটের কোচ রাজিন সালেহ, অলক কাপালী ও আবু জায়েদ চৌধুরী রাহী।

    এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০