বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পেছনে বড় কোনো সমস্যা পায়নি তদন্ত কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চরম ভরাডুবি হয়েছে বাংলাদেশ দলের। দলের ভেতরের সমস্যা বাইরে এসেছে বারংবার। যা নিয়ে ক্রিকেট পাড়ায় চলেছে তোলপাড়। যার হাওয়া স্বাভাবিকভাবেই লেগেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) গায়েও। বিশ্বকাপের পর জাতীয় দল নিয়ে অনেক পরিবর্তনের আবহ দেখা যায় ক্রিকেট বোর্ডে।

যার মধ্যে একটি হলো তদন্ত কমিটি। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার কারণ অনুসন্ধানের জন্য দুই সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিসিবি। সেই দুই সদস্য হলেন বোর্ডের দুই অভিজ্ঞ এবং সিনিয়র পরিচালক জালাল ইউনুস ও এনায়েত হোসেন সিরাজ। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার মূল কারণ বের করে আনতে তাদেরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়।

এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যর্থতা নিয়ে রিপোর্ট দেননি দুই সদস্যের সেই তদন্ত কমিটি। তবে অনানুষ্ঠানিকভাবে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে কিছু তথ্য দিয়েছেন তারা। তবে তদন্তে বড় কোনো ধরনের সমস্যা পাননি সেই দু’জন। আর এই বিষয়টি জানিয়েছেন পাপন নিজেই। আর এমন সংবাদে খুব একটা অবাকও হননি তিনি।

শনিবার পাপন বলেন, ‘আমরা এখনও তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনের অপেক্ষা করছি। বিশ্বকাপে প্রতিটি ম্যাচে প্রায় একই কাহিনী। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের খারাপ সময় যায়। কিন্তু এত ভালো খেলোয়াড়, একসাথে এতগুলো ম্যাচে কেউ পারফর্ম করতে পারল না? কেউ পারল না? এই জিনিসটা আমার কাছে স্বাভাবিক মনে হয়নি। পুরো টুর্নামেন্টে কাউকে মনে হয়নি তাদের পটেনশিয়াল অনুযায়ী খেলতে পেরেছে। তাহলে নিশ্চয়ই কোনো সমস্যা আছে।’

তদন্ত কমিটিতে ছিলেন বোর্ডের দুই শীর্ষস্থানীয় পরিচালক জালাল ইউনুস ও এনায়েত হোসেন সিরাজ। পাপনের দাবি, অন্য বোর্ড পরিচালকদের চেয়ে কিংবা অতীতের তদন্ত কমিটিগুলোর চেয়ে এই কমিটি ছিল অপেক্ষাকৃত বেশি নিরপেক্ষ।

তিনি জানান, ‘সমস্যা সমাধানের জন্য আমরা তদন্ত কমিটি করেছি। যতটুকু সম্ভব নিরপেক্ষ কমিটি। তারা তদন্ত করেছেন। সম্ভবত শেষও করে ফেলেছেন, বা প্রায় শেষ। প্রতিবেদন এখনও দেয়নি, দিয়ে দিবে। আমি কিছু তথ্য নেওয়ার চেষ্টা করেছি। আহামরি তেমন কিছু পাওয়া যায়নি। এতে আমি আশ্চর্যও হইনি।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/সা/১১০