ব্রাজিলকে হারিয়ে শীর্ষস্থান মজবুত করল আর্জেন্টিনা

0
1004

স্পোর্টস ডেস্কঃ দর্শকের হাঙ্গামায় নির্ধারিত সময়ে শুরু হয় নি ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনার মধ্যকার ২০২৬ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচটি। সূচি অনুযায়ী বুধবার বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায় শুরু হওয়ার কথা এই ম্যাচ। কিন্তু ব্রাজিলের মারাকানা স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে দর্শকের মারামারিতে খেলা শুরু হতে দেরি হয় ৩০ মিনিট। প্রথমে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা দর্শকের মধ্যে মারামারি হয়। এরপর ব্রাজিলের পুলিশকে দেদারসে পেটাতে দেখা যায় আর্জেন্টাইন জার্সি পরিহিত সমর্থকদের।

নির্ধারিত সময়ের ৩০ মিনিট পর শুরু হওয়া ম্যাচটি জিতেছে আর্জেন্টিনা। ব্রাজিলের মাঠে ১-০ গোলে জিতেছে তারা। গোল করেছেন নিকোলাস ওতামেন্ডি। ৬ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের পয়েন্ট টেবিলে শীর্ষে আর্জেন্টিনা। ৬ ম্যাচে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ছয়ে নেমেছে ব্রাজিল। অন্য ম্যাচে বলিভিয়ার বিপক্ষে দারউইন নুনিয়েজের জোড়া গোলে ৩–০ ব্যবধানে জিতেছে উরুগুয়ে। প্যারাগুয়েকে ১–০ গোলে হারিয়েছে কলম্বিয়া। ইকুয়েডরের কাছে ১–০ গোলে হেরেছে চিলি। ৬ ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুইয়ে উরুগুয়ে। সমান ম্যাচে ১২ পয়েন্ট নিয়ে তিনে কলম্বিয়া।৬ ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচে ইকুয়েডর।

দুই দলের সমর্থকদের দাঙ্গায় কিক অফের আগেই উত্তাপ ছড়ালে দল নিয়ে বেরিয়ে যান মেসি। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার পর মাঠে ফেরে আর্জেন্টিনা। গ্যালারির এই উত্তেজনার পারদ নিয়ে নেমে মাঠেও তা যেন ছড়িয়ে পড়ে। শুরুর কয়েক মিনিটে দুই দলই জড়ায় একাধিক বিবাদে, অনেকগুলো ফাউলে খেলার গতি হয় মন্থর। তবে বল পেলেই দুই দলকে দ্রুত আক্রমণে উঠে দেখা যাচ্ছিলো। তা ছড়িয়েছে রোমাঞ্চ। প্রতিপক্ষের বক্সে গিয়ে উভয় দলের খেই হারানো আক্রমণে চলছিল ম্যাচ। প্রথমার্ধের সবচেয়ে সুর্বণ সুযোগগুলো পায় ব্রাজিল। ৩৯ মিনিটে রাফিনিয়ার শট অল্পের জন্য বাধাগ্রস্ত হয়ে ফিরে যায় কর্নারে। ৪৪ মিনিটে কর্নার থেকে তৈরি হওয়া আক্রমণে বক্সের ভেতর বল পান গ্যবারিয়েল মার্তিনেল্লি। তার হাফ ভলি ঢুকে যাচ্ছিল বক্সের দিকে। গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্টিনেজও নাগাল পাননি। তবে তার পেছনে দাঁড়িয়ে থাকা আকুনা হাঁটু দিয়ে তা প্রতিহত করে দলকে রক্ষা করেন।

বিরতির পরও একই তালে চলছিল লড়াই। প্রথমার্ধেই ২২ ফাউল হয়ে যাওয়ায় মাঠের ফুটবল ছিলো কিছুটা মলিন। ব্রাজিল এগিয়ে যেতে চেষ্টা নেয় মরিয়া, তবে আক্রমণে প্রতিপক্ষের বক্সে গিয়ে খেই হারায় তারা। ৬৩ মিনিটে সুযোগ কাজে লাগায় আর্জেন্টিনা। লো সেলসোর মারা বল বক্সের পেয়ে জটলা থেকে লাফিয়ে উঠে হেড নেন ওটামেন্ডি। দারুণ হেড জড়িয়ে যায় ব্রাজিলের জালে। এমন উত্তেজনার ম্যাচে পিছিয়ে গিয়ে খেলার ফেরা কঠিন। গোল খেয়ে ব্রাজিল একের পর এক আক্রমণ চালিয়ে চেষ্টা করে ফেরার। রাফিনহাকে উঠিয়ে এন্দ্রিক, গ্যাব্রিয়েল জেসুজকে সরিয়ে জোয়েল্টিনকে নামান দিনিজ। বদল আনে আর্জেন্টিনাও। ৭৮ মিনিটে মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যান পুরো ম্যাচে অনেকটা নিষ্প্রভ লিওনেল মেসি।

৭২ মিনিটে মাঠে নেমে ৮১ মিনিটেই সরাসরি লাল কার্ড দেখেন জোয়ালিন্টন। বল নিয়ে ছুটে চলা জোয়েলিন্টনকে পেছন থেকে হাতে টেনে ধরেন রদ্রিগো দে পল। জোয়েল্টিন হাত ছাড়িয়ে নিতে পেছনে ঘুরে দেখান প্রতিক্রিয়া। চিলির রেফারি পিয়েরো মাজা তাতেই সরাসরি লাল কার্ড দেখান ব্রাজিল ফরোয়ার্ডকে। এই সিদ্ধান্ত না মেনে তুমুল বিবাদে জড়ায় ব্রাজিল। লম্বা সময় মাঠে থেকে তর্ক করেন জোয়েলিন্টন। পরে তাকে অবশ্য বেরুতে হয়। নির্ধারিত সময়ের বাকি ৯ ও যোগ করা ৬ মিনিট মিলিয়ে মোট ১৫ মিনিট ১০ জন নিয়ে খেলে ব্রাজিল।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/১১০

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here