ভারতীয় ক্রিকেটারদের ‘কঠোর’ শাস্তি চাইলেন কপিল দেব!

স্পোর্টস ডেস্ক:: যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষে ভারত ও বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের হাতাহাতির ঘটনায় বেশ ক্ষুব্ধ বারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেব। তার মতে ম্যাচ হারের পর সোজা ড্রেসিংরুমে ফিরে যাওয়া উচিত ছিলো ভারতীয় ক্রিকেটারদের। এমন ঘটনায় তিনি দুই দেশের বোর্ড ‘কঠোর’ হতে বলেছেন।

ভারতের সাবেক এই অধিনায়কের মতে, দুই দলের ক্রিকেটাররা যে কাণ্ড করেছেন তা অগ্রহণযোগ্য। এর দায়বার দল দু’টির ম্যানেজারদের পাশাপাশি সাপোর্ট স্টাফদেরও। ডাগআউটে বসা ম্যানেজম্যান্টের লোকজন ক্রিকেটারদের শান্ত রাখতে পারেননি। তরুণ খেলোয়াড়রা না বুঝে অনেক কিছুই করতে চাই। সেটা থেকে তাদেরকে দূরে রাখতে হবে টিম ম্যানেজম্যান্টকে।

বিসিবি এবং বিসিসিআইকে তিনি অনুরোধ করেছেন, এসব ক্রিকেটারদের বিরুদ্ধে আরো ‘কঠোর’ হতে। ভবিষ্যতের জন্য শাস্তি মূলক ব্যবস্থা নিতে। এমন ঘটনার পর ক্রিকেটকে ভদ্রলোকের খেলা বলা যায় না, মন্তব্য করেন কপিল।

মুম্বইয়ে এক অনুষ্ঠানে রবি বিষ্ণোইদের আচরণের তীব্র সমালোচনা করলেন তিনি। নিজ দেশের ক্রিকেটারদের আরো ‘কঠোর’ শাস্তির পক্ষে তিনি। কপিলকে প্রশ্ন করা হয়, ক্রিকেট ভদ্রলোকদের খেলা। সেখানে এ ধরনের আচরণ মানা যায়? ভারতের প্রাক্তন অধিনায়কের উত্তর, ‘‘কে বলছে ক্রিকেট ভদ্রলোকদের খেলা? আগে হয়তো ছিল। এখন আর নেই।’’

তিনি বলেন, ‘‘ম্যাচ শেষে যা হয়েছে তা অত্যন্ত ভয়ঙ্কর। যে কোনও দল ম্যাচে হারতেই পারে। কিন্তু এ ধরনের আচরণ একেবারেই কাম্য নয়। চুপচাপ ড্রেসিংরুমে ফিরে আসা উচিত ছিল। দু’দেশের ক্রিকেট বোর্ডের উচিত ওদের বিরুদ্ধে কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া। যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা আর না ঘটে।’’

দায় টিম ম্যানেজম্যান্টকেও নিতে হবে জানিয়ে কপিল দেব বলেন ‘‘সব চেয়ে বেশি দোষ দেব অধিনায়ক, ম্যানেজার ও যাঁরা ডাগ আউটে বসেছিলেন, তাঁদের। অনেক সময় একজন ১৮ বছর বয়সি ছেলে বুঝতে পারে না কী আচরণ করা উচিত। কিন্তু এ ধরনের কোনও ঘটনা যাতে না ঘটে সেটা তো ম্যানেজারের দেখতে হবে।’’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/ডেস্ক/০০