মাশরাফীর বিদায়ে তামিম-মুশফিকরা যা বললেন

ছবিঃ বিসিবি।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ সাড়ে ৫ বছর ধরে জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব করছেন মাশরাফী বিন মোর্ত্তাজা। দলকে আগলে রেখেছেন পরিবারের মতো। বাংলাদেশকে এনে দিয়েছেন লড়াই-জয়ের মানসিকতা। খেলোয়াড়দের কাছ থেকে জানতেন সেরাটা বের করে আনা।

মাঠ এবং মাঠের বাইরে সবসময় ক্রিকেটারদের সামলিয়ে রাখতেন মাশরাফী। সমালোচনা আসলে, সেটি সবার আগে তিনিই প্রতিহত করতেন। সব মিলিয়ে বাংলাদেশ দলকে পরিবারের মতো রেখেছেন তিনি। সেই মাশরাফী আজ বাংলাদেশ দলের অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

বড় ভাইয়ের মতো মাশরাফীকে পাওয়া সতীর্থরাও তাই তাঁর বিদায়ে আবেগী, আপ্লুত। বিশেষ করে বর্তমান দলে থাকা তিন পান্ডব মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ খুবই আবেগঘন হয়ে পড়েছেন। সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শেষ ওয়ানডের আগে অনুশীলনে নিজ নিজ প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন তাঁরা।

মুশফিকুর রহিম বলেন, ‘মাশরাফি ভাইয়ের কোনো বদলি হবে না। বাংলাদেশে আর এমন অধিনায়ক আসবে না। উনি যেন পরিবারের একটা অংশ। তাঁর অধিনায়কত্ব খুব মিস করব। শুধু মাঠেই না, মাঠের বাইরেও মাশরাফি ভাইয়ের অভাব দেখা দেবে। তার সঙ্গে খেলাটা অন্যরকম অনুভূতি।’

তামিম ইকবাল বলেন, ‘মাশরাফি ভাইয়ের অবদান ভোলার মতো না। ২০১৫ থেকে আমাদের দলটির জন্য এ পর্যন্ত যা করেছেন সেটি অস্বীকার করা যাবে না।’

আর মাশরাফীকে নিয়ে মাহমুদউল্লাহর ভাষ্য, ‘বাংলাদেশের অধিনায়ক হিসেবে অনেক কিছুই দিয়েছেন। কোনো সংশয় নেই যে বাংলাদেশের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় তিনি। আরও কয়েক বছর খেলতে পারবেন তিনি। আশা করছি ভালো করবেন। খেলাটা চালিয়ে গেলে আমার পক্ষ থেকে শতভাগ শুভকামনা।’

বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক আরও বলেন, ‘অবসরের পর যে পরিকল্পনাই করুক, সেটির জন্যও শুভকামনা জানাই। যেখানেই থাকুন ভালো থাকবেন আশা করি। অধিনায়ক হিসেবে কতটা সফল উনি সেটি রেকর্ড দেখলেই বোঝা যায়। মাশরাফি ভাই দলের দায়িত্ব নেওয়ার আগে আমরা বেশ ভুগছিলাম। উনি বাংলাদেশের দায়িত্ব নেওয়ার পর দলের চেহারাই পাল্টে গিয়েছিল। উনি আসায় কাজ সহজ হয়েছিল।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা