মুস্তাফিজ-সাকিবের বোলিং তোপে আশা জিইয়ে রাখল বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্কঃ ওমানের বিপক্ষে দারুণ জয় পেলো বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ জিতল ২৬ রানে। বাঁচা-মরার ম্যাচে আগে ব্যাট করে ১৫৩ রান করে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। জবাব দিতে নেমে স্বাগতিক ওমান গুঁটিয়ে যায় ১২৭ রানে।

বাংলাদেশের দেওয়া ১৫৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দারুণ শুরু করে স্বাগতিক ওমান। পাওয়ার প্লে’তে ২ উইকেট হারিয়ে ৪৭ রান তোলে তারা। জতিন্দর সিং ৩৩ বলে ৪০ রান করে আউটের পর ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় বাংলাদেশ। পরের ৭ ওভারে ৩৭ রান নিতে ওমান হারায় ৫ উইকেট।

শুরুতে ওপেনার আকিব ইলিয়াসকে ব্যক্তিগত ৬ রানে ফেরান মুস্তাফিজ। তবে দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে জতিন্দর সিং ও ক্যাশব প্রজাপতি মিলে যোগ করেন ৩৪ রান। প্রজাপতি ফেরেন মুস্তাফিজের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ২১ রান করে।

অধিনায়ক জিসান মাকসুদের (১২) সাথে যতীন্দর সিংয়ের আরও ৩৪ রানের জুটি ওমানের জয়ের স্বপ্ন বড় করে। তবে পর পর দুই ওভারের দুইজনই বিদায় নিলে আর জয়ের পথে ছুটতে পারেনি ওমান। জীবন পেয়ে ৩৩ বলে ৪০ রানে থামেন জতিন্দর।

শেষদিকে মোহাম্মদ নাদিমের অপরাজিত ১৪ রানে কেবল হারের ব্যবধান কমেছে। মুস্তাফিজের শিকার ৪ উইকেট। ৩ টি নেন সাকিব, একটি করে উইকেট শেখ মেহেদী ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের।

এর টস জিতে আগে ব্যাট করে মোহাম্মদ নাঈম শেখের ফিফটি ও তার সঙ্গে সাকিব আল হাসানের চমৎকার জুটিতে লড়াইয়ের পুঁজি পায় বাংলাদেশ। শেষ দিকে কিছুটা অবদান রেখেছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও।

নাঈমের ব্যাট থেকে আসে ৫০ বলে ৬৪ রান। ৪টি ছয় ও ৩টি চারের মারে এই রান করেন নাঈম। এ ছাড়া সাকিব ২৯ বলে ৪২ রান করেন। তার ইনিংসে ৬টি চারের মার ছিল। দুইজনের জুটি থেকে আসে ৮০ রান। সাকিব-নাঈম ছাড়া সর্বোচ্চ রান আসে মাহমুদউল্লাহর ব্যাট থেকে ১৭ রান। এ ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যান দেখেননি দুই অঙ্কের মুখ।

ওমানের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট করে নেন বিল্লাল খান ও ফয়েজ বাট। এ ছাড়া ২টি উইকেট নেন কালিমুল্লাহ। ১ উইকেট জমা পড়ে জিসান মাকসুদের ঝুলিতে।

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/১১০