মেসি কি সত্যিই ‘নাটক’ করলেন?

ছবি- রয়টার্স।

আশিক উদ্দিনঃ নানা টানাপোড়নের পর লিওনেল মেসি জানিয়ে দিলেন, আপাতত কোথাও যাচ্ছেন না, আরও এক মৌসুম থাকছেন বার্সেলোনাতেই। ১০ দিনের নাটকীয়তা শেষে আবার প্রাণের ক্লাবে থাকার কথা জানিয়ে সেই উত্তাপে আরেক দফা ঘি ঢেলেছেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। গোল ডটকমের সাথে লম্বা একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন মেসি, জানিয়েছেন ক্লাবে থেকে যাওয়ার নানা কারণ। তবে ১০ দিনে বিশ্ব মিডিয়ায় নানা কথা উঠার পর মেসির এমন সিদ্ধান্তকে অনেকে স্রেফ নাটক বলছেন। কিন্তু আসলেই কি তিনি নাটক করলেন? গোল ডটকমে যে ভিডিও দেখা গেছে সেখানে মেসি ক্লাব ছাড়ার নাটক করেছেন সেটি বিশ্বাস করা আসলে কষ্টসাধ্য‍!

বাংলাদেশে ‘দীপু নাম্বার টু’ একটি সিনেমা আছে। বাবা সরকারী চাকুরিজীবি হওয়াতে সেই সিনেমার দীপু চরিত্রের এক ছাত্রকে স্কুল পড়ুয়া অবস্থায় বার বার স্কুল বদলাতে হয়েছিল। বাবার বদলির কারণে প্রতিবছর দীপুকে যেমন বদলাতে হতো স্কুল, তেমনি পরিচিত পরিবেশ, বন্ধুবান্ধব। স্পেনের কাতালুনিয়ায় বাস করা মেসির ছেলে থিয়াগো মেসির জীবনে বাংলা সিনেমার দীপু’র মত এই একই রকম পরিস্থিতি আসতে চলেছিল। মেসি যে কারণগুলোর জন্য এবার বার্সা ছাড়েন নি তার মধ্যে অন্যতম, এইটুকুন বয়েসে তাঁর তিন ছেলেকে আরেক পরিবেশে মানিয়ে নিতে কষ্ট হবে তাই। গোল ডটকমে মেসি তাঁর পুরো পরিবারের কান্নায় ভেঙে পড়ার গল্প বলতে গিয়ে মেসি নিজেই আবেগতাড়িত হয়ে গিয়েছিলেন। সে বিচারে এই ঘটনা শেষ পর্যন্ত নাটকে পরিণত হলেও, মেসি নাটক করেছেন এমন দাবি করা প্রায় অযৌক্তিকই।

গোল ডটকমে ঐ সাক্ষাৎকারে মেসি জানান, ‘পরিবারকে বার্সেলোনা ছাড়ার কথা জানানোর পর এক হৃদয়বিদারক পরিস্থিতি হয়েছিল। সবাই কান্নায় ভেঙে পড়েছিল। আমার সন্তানরা বার্সেলোনা ছাড়তে চায়না, স্কুলও বদলাতে চায় না। থিয়াগো বয়সে বড়। ও ব্যাপারগুলো বুঝতে পারে কিছুটা। আমি চায়নি ওকে জানাতে। টিভিতে খবর দেখে জেনেছে ও। পরে আমার কাছে কাঁদতে কাঁদতে এসে বলেছে আমরা যেন বার্সেলোনা না ছাড়ি।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/১১০