ম্যাচ সেরায় উচ্ছ্বসিত হেনা, হতে চান টুর্নামেন্ট সেরা বোলার

ছবিঃ এসএনপিস্পোর্টস।

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ গ্রুপে পর্বে টানা দুই ম্যাচে শতভাগ জয় নিয়ে নবম বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ গেমসের ফাইনালে উঠেছে নীল দল। সালমা খাতুনের নেতৃত্বাধীন দলটির বড় শক্তির জায়গা বোলিং। প্রথম ম্যাচে দারুণ বোলিং পারফর্মেন্স করেছেন ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা। ১৪ রানে ৬ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা হয়েছিলেন এই মিডিয়াম পেস বোলার।

এদিকে আজ দ্বিতীয় ম্যাচে আরেক বোলার মুমতা হেনা হাসনাত দেখিয়েছেন নৈপুণ্য। বল হাতে শিকার করেছেন ৪টি উইকেট। এর জন্য ১০ ওভার বল করে ১ মেইডেনসহ ২২ রান খরচ করেছেন তিনি। তার বোলিং কারিশমার দিনে নীল দল ৯ উইকেটে সবুজ দলকে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনালে উঠেছে। ম্যাচ সেরার পুরষ্কারটা উঠেছে হেনার হাতেই।

দুর্দান্ত বল করতে পেরে উচ্ছ্বসিত হেনা। ম্যাচ শেষে এসএনপিস্পোর্টসকে একান্তভাবে জানিয়েছেন প্রথমবারের মতো এমন একটা টুর্নামেন্টের ম্যাচ সেরার পুরষ্কারে অনেক খুশি তিনি। নারীদের চলমান এই টুর্নামেন্টে সেরা বোলার হতে চান এই ক্রিকেটার। দলের পারফর্মেন্স নিয়েও কথা বলেছেন।

হেনা বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, বলে বোঝাতে পারব না অনুভূতি কেমন হচ্ছে (উচ্ছ্বসিত হাসিমুখে)! প্রথমবারের মতো এমন একটা টুর্নামেন্টে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হওয়া, অনেক বড় কিছু পাওয়া বলে মনে হচ্ছে। আসলে অনেক আনন্দিত আমি।’

দীর্ঘদিন পর ক্রিকেটে ফিরে মানিয়ে নিতে খুব একটা অসুবিধে হচ্ছে না বলেও জানিয়েছেন এই ক্রিকেটার। এই নিয়ে হেনা বলেন, ‘অনেক ভালো লাগছে, অবশেষে আমরা মাঠে ফিরতে পেরেছি। আল্লাহ’র কাছে শুকরিয়া যে ভালোভাবে মাঠে ফিরতে পেরেছি। তবে এতদিন পড়ে যে ফিরেছি, সেটা তেমন কোনো প্রভাব ফেলতে পারেনি। পুনোরোদ্দমেই খেলতে পারছি।’

দল এবং ব্যক্তিগত পারফর্মেন্স নিয়ে হেনার ভাষ্য, ‘অবশ্যই ব্যক্তিগত লক্ষ্য নিয়েই নেমেছি। যেহেতু ভালো করছি, লক্ষ্য আছে টুর্নামেন্টে সেরা বোলার হবার। আর দলের পারফর্মেন্স খুবই ভালো। আমরা অনেক ভালো খেলছি। প্রথম ম্যাচে দশ উইকেটে জিতেছি, দ্বিতীয় ম্যাচে আজ ৯ উইকেট জিতেছি, অনেক ভালো লাগছে। সবাই অনেক ভালো খেলছে, ইনশাআল্লাহ সামনেও আরো ভালো করব।’

এসএনপিস্পোর্টসটোয়েন্টিফোরডটকম/নিপ্র/সা